banglanewspaper

অবরুদ্ধ গাজায় প্রবেশ করে ফিলিস্তিনি ও হামাসের ওপর হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। এ ঘটনায় হামাসের দুই কমান্ডারসহ ছয় ফিলিস্তিনি এবং এক ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছেন।

এছাড়া আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী ও গাজার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এখবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

হামাস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দক্ষিণ গাজার খান ইউনিস শহরে প্রবেশ করে এক হামাস কমান্ডারকে হত্যা করে ইসরায়েলি বাহিনী। কমান্ডার নিহত হওয়ার পর হামাস সদস্য ও স্থানীয়রা ইসরায়েলি সেনাদের গাড়িটির ওপর হামলা চালালে দু’পক্ষের মধ্যে গুলিবিনিময় শুরু হয়।

এ সময় ইসরায়েলি সেনাদের গাড়িকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করার জন্য এক জঙ্গিবিমান থেকে অন্তত ২০টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। গুলি বিনিময় ও ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে হামাসের স্থানীয় কমান্ডার মোহাম্মাদ আল-কারাসহ আরো পাঁচজন ফিলিস্তিনি নিহত হন। ইসরায়েল সীমান্ত থেকে গাজা উপত্যকার তিন কিলোমিটার ভেতরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় এক ইসরায়েলি এক সেনা নিহত ও একজন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ইসরায়েল। অবরুদ্ধ গাজায় খেয়ালখুশি মতো অভিযান চালায় ইসরায়েলি সেনারা। এছাড়া হামাস সদস্যের দোহাই দিয়ে যাকে খুশি তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। বাদ যায় না নারীরাও।

এর প্রতিবাদ করলেই তাদের ওপর নেমে আসে নির্যাতন। এমন অভিযানের ভিডিওতে দেখা গেছে যে, শিশু থেকে আলাদা করে মাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলি সেনারা। দেশটির কারাগারে নারী ও শিশুসহ কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি আটক রয়েছেন।

চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে নিজভূমিতে ফেরার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে ফিলিস্তিনিরা। নিজেদের ভূমিতে দাড়িয়ে আন্দোলন করলেও সেখানে সরাসরি গুলি চালিয়ে কয়েক শ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

সারা বিশ্ব ইসরায়েলের এমন আচরণের তীব্র নিন্দা জানালেও সবচেয়ে কাছে বন্ধু যুক্তরাষ্ট্রের আশির্বাদের হাত মাথায় নিয়ে যা খুশি তাই করে যাচ্ছে ইসরায়েল- এমনটিই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

ট্যাগ: bdnewshour24 গাজায় প্রবেশ ইসরায়েলি বাহিনী