banglanewspaper

বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণে দড়ি নিয়ে খেলতে গিয়ে গলায় ফাঁস লেগে ইয়াদুল (১০) নামে এক শিশুর করুণ মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার দুপুরে নিজ বাড়ির আড়ার সাথে ঝুলে তার মৃত্যু হয়। ইয়াদুল যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাদে নাভারণ গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে এবং নাভারণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্র।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, ইয়াদুল প্রতিদিন দড়ি নিয়ে খেলা করে। দড়িতে ঝুলাঝুলি সহ বিভিন্ন রকমের ব্যায়াম করা তার প্রতিদিনের অভ্যাস। শনিবার সকালে নিজ বাড়িতে আড়ার সাথে দড়ি ঝুলিয়ে সে খেলা করছিল। খেলা শেষে তার পরীক্ষা দিতে যাওয়ার কথা। এসময় ইয়াদুলের বাবা মা যে যার মতো কাজে বাইরে চলে যায়। ফাঁকা বাড়িতে ইয়াদুল খেলতে খেলতে হঠাৎই তার গলায় ফাঁস লেগে যায়।

ছোট্ট ইয়াদুলের ছোট ছোট চিৎকার আর ছটফটানি কারো নজরে না পড়াই শিশু ইয়াদুলের রশিতে ঝুলে এক বেদনা বিধুর করুণ মৃত্যু হয়। মৃত্যুর কিছুক্ষণ পর ইয়াদুলের মা বাড়িতে ফিরে শিশু ইয়াদুলের নিথর দেহটি ঝুলে থাকতে দেখে জোরে চিৎকার দিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

দ্রুত আশে পাশের লোকজন ছুটে এসে আড়া থেকে ইয়াদুলের মৃতদেহ মাটিতে নামান এবং সকলে এক যোগে কান্না শুরু করেন। ছোট শিশু ইয়াদুলের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছাঁয়া নেমে আসে।

ঝিকরগাছা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 খেলতে গিয়ে দড়িতে ফাঁস