banglanewspaper

কোন বিশেষণই যেন যথেষ্ট নয়। এনফিল্ডে রাতের আলোয় যেন অলৌকিক ফুটবলের পসরা সাজাল লিভারপুল! আসলেই মিরাকল! প্রথম লেগে ০-৩ গোলে হার! কিন্তু কে জানতো এই দলটাই কীনা দুই সেরা তারকাকে ছাড়াই পেয়ে যাবে ৪-০ গোলের ঐতিহাসিক জয়। নতুন ইতিহাস লিখে অসম্ভবকে সম্ভব করেছে ইংলিশ জায়ান্টরা।

বার্সেলোনাকে উড়িয়ে জন্ম দিয়েছে নতুন এক রূপকথার! হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন লিওনেল মেসিদের স্বপ্ন ভেঙে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুল!

মঙ্গলবার বার্সাকে দুঃস্বপ্ন উপহার দিয়ে ঠিক ৪-০ গোলেরই জয় তুলে নিয়েছে অলরেডরা! তারই পথ ধরে দুই লেগ মিলে ৪-৩ ব্যবধানে এগিয়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। বার্সাকে বিদায় করে ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসরের ফাইনালে লিভারপুল।

সমীকরণ এভাবে মিলে যাবে কে জানতো? নিজেদের পোষ্টে কোন বল যাবে না। প্রতিপক্ষকে দিতে হবে চার গোলের তিক্ত স্বাদ! ঠিক তাই করলো লিভারপুল। দুটি করে গোল করলেন দিভোক ওরিগি ও জর্জিনিয়ো ভেইনালডাম!

নু ক্যাম্পে প্রথম লেগে ০-৩ গোলে হারের পর এমনই অবিশ্বাস্য জয়ের স্বপ্নে বিভোর ছিল ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। কিন্তু ইনজুরিতে একাদশ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন দুই সেরা তারকা মোহাম্মদ সালাহ ও রবার্তো ফিরমিনো। তাদের ছাড়াই মঙ্গলবার রাতে মিশন ইমপসিবল-কে পসিবল করে মাঠ ছেড়েছে লিভারপুল!

প্রতিপক্ষের মাঠে ০-২ গোলে হারলেও যেখানে চলতো সেখানে বার্সাকে একেবারেই অচেনা মনে হয়েছে। ছন্নছাড়া ফুটবল খেলেছে পুরোটা সময়। অবশ্য স্কোরলাইনই বলে দেয় লিওনেল মেসিদের জন্য রাতটা ছিল না।

ট্যাগ: bdnewshour24 বার্সা ফাইনাল লিভারপুল