banglanewspaper

পাবনার বেড়া উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ওয়ালী উল্লাহ (৩১) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন পুলিশের তিন সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে অস্ত্র  ও মাদক। বুধবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে পৌর সদরের জোরদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওয়ালী উল্লাহ বেড়া পৌর সদরের শানিলা মহল্লার আকবর আলীর ছেলে। পুলিশের দাবি, তিনি মাদক কারবারি ও আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য। তার বিরুদ্ধে পাবনার বিভিন্ন থানা এবং সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানায় আটটি ডাকাতি ও মাদক মামলা রয়েছে।

বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীদ মাহমুদ জানান, ‘বুধবার অভিযান চালিয়ে চিহ্নিত মাদক কারবারি ওয়ালী উল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাকে নিয়ে রাতে পৌর সদরের জোরদা এলাকায় মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায় পুলিশ।’

‘পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ওয়ালী উল্লাহর সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে মাদক কারবারিরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে ওয়ালী উল্লাহকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে তার মৃত্যু হয়।’

ওসি আরও জানান, ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি শার্টারগান, দুটি ম্যাগাজিন, ছয় রাউন্ড গুলি ও ১৭ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় উপপরিদর্শক শামসুল ইসলাম ও দুই কনস্টেবল আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 বন্দুকযুদ্ধ যুবক নিহত