banglanewspaper

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগরে কৃষকদের অনুপস্থিতিতে হয়ে গেল অভ্যন্তরীণ আমন ধান ২০১৯-২০ সংগ্রহের জন্য কৃষক নির্বাচনের উপজেলার ছয় ইউনিয়নের উন্মুক্ত লটারী।

মঙ্গলবার দুপুর আনুমানিক ১২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলার কালিগ্রাম ইউনিয়ন, পারইল ইউনিয়ন, একডালা ইউনিয়ন, গোনা ইউনিয়ন, খট্টেশ্বর রাণীনগর (সদর) ইউনিয়ন ও কাশিমপুর ইউনিয়নসহ মোট ছয় ইউনিয়নের লটারী অনুষ্ঠিত হয়। 

লটারী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাণীনগর উপজেলা সরকারি ধান-চাল ক্রয় কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আল মামুন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, রাণীনগর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম, খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম লিটন, কৃষি কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, কালিগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম বাবলু, কাশিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মখলেছুর রহমান বাবুসহ অন্যান্যরা। তবে উপজেলার ছয় ইউনিয়নের লটারীর অনুষ্ঠান হলেও লটারী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে হাতেগোনা কয়েকজন কৃষকদের উপস্থিতি দেখা গেছে।

এদিন লটারী অনুষ্টানে কালিগ্রাম ইউনিয়নের ৩৩৬ জন কৃষক, পারইল ইউনিয়নের ৩১৮ জন কৃষক, একডালা ইউনিয়নের ৩৩৭ জন কৃষক, গোনা ইউনিয়নের ২০৪ জন কৃষক, খট্টেশ্বর রাণীনগর (সদর) ইউনিয়নের ১৩৬ জন কৃষক ও কাশিমপুর ইউনিয়নের ১০৫ জন কৃষক লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত হয়।

এ ব্যাপারে রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আল মামুন এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, মাইকিং করে প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়েছে। এখন মাঠে কাজের সময় তাই হয়তো কৃষকরা উপস্থিত হতে পারেনি। তবে লাটরীতে কৃষক উপস্থিত ছিলো বলে জানান তিনি। 

ট্যাগ: bdnewshour24 রাণীনগর