banglanewspaper

ইরাকের বিমানবন্দরে ইরানের শীর্ষ জেনারেল হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্রের দুই বড় শহর আতঙ্কে কাটছে। নড়েচড়ে বসেছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোও। তারা আশঙ্কা করছে, সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নিতে যেকোন সময় ‍যুক্তরাষ্ট্রে হামলা করত পারে ইরান। বিশেষ করে দেশটির দুই বড় শহর নিউইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলসের নিরাপত্তা বহিনী রয়েছে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে।

শুক্রবার ভোরে ইরানের দ্বিতীয় ক্ষমতাধর ব্যক্তি জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে মার্কিন ড্রোন হামলায় তার দুই পরামর্শকসহ বাগদাদে নিহত হন। তারপর থেকে গোটা বিশ্বে থাকা মার্কিনিরা হামলার ভয়ে আতঙ্কিত। ইরাকসহ বেশ কিছু ঝুঁকিপূর্ণ দেশ থেকে মার্কিনিদের চলে আসার পরামর্শ দয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

নিউইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলসের আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছে, তাদের শহর অধিক মাত্রায় ঝুঁকিতে রয়েছে। নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাসিও বলেছেন, শহরে হামলার বিশ্বস্ত ও নির্দিষ্ট তথ্য তাদের কাছে না থাকলেও পুলিশকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

নিউইয়র্কের মেয়র বলেছেন, ইরান প্রতিক্রিয়া জানাতে শুরু করলে প্রথম ধাপেই যে নিউইয়র্কে হামলা চালাবে মনে করছেন না তিনি। তবে ইরানের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রক্সি গ্রুপও হামলা চালাতে পারে যেকোনো সময়। তাই তিনি তার শহরে নিরাপত্তার কথা ভেবে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিচ্ছেন।
 

ট্যাগ: bdnewshour24 হামলা