banglanewspaper

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী বা মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নরেন্দ্র মোদি, প্রণব মুখার্জি, আরব আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্স, বান কি মুন, ওআইসি সেক্রেটারি জেনারেল, ভুটানের রাজা ও মাহাথির মুহাম্মদ আসতে সম্মতি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির বৈঠক শেষে পররষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন। বৈঠকটি রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে বৈঠক শেষে কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী জানান, আগামী ১০ জানুয়ারি (শুক্রবার) তেজগাঁওয়ের জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে প্রতীকী বিমান অবতরণের মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আবহ সৃষ্টি করে জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা শুরু উদ্বোধন হবে। ওই দিন বিকাল ৫টায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ১৩০জে উড়োজাহাজ জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অবতরণ করবে। আর এর মধ্য দিয়েই শুরু হবে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা।

দুই লাখের বেশি মানুষের উপস্থিতিতে ক্ষণগণনা কর্মসূচি বর্ণাঢ্যভাবে আয়োজনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে জানিয়ে ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, ‘১০ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনার শুভ উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনের সাথে সাথেই রাজধানীসহ সারাদেশের সকল বিভাগ, জেলা ও উপজেলায় স্থাপিত ঘড়িতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা শুরু হবে। একই সাথে ডিসপ্লেতে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর ভিডিও প্রদর্শিত হবে। কিউ আর কোডের মাধ্যমে যে কেউ চাইলেই জন্মশতবার্ষিকীর ওয়েবসাইটের সাথে সংযুক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ও জন্মশতবার্ষিকীর আয়োজনের নানা তথ্য জানতে পারবে। এছাড়া জানাতে পারবে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে নিজের অনুভূতি।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ক্ষণগণনার উদ্বোধনের পর বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে আগামী ১৭ মার্চ রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মুজিববর্ষ উদযাপন শুরু হবে।

প্রসঙ্গত, বিগত ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সদ্য স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশে ফিরে আসেন। যা বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস হিসেবে বাংলাদেশিরা স্মরণ করে থাকে। ওইদিন বিকেল ৫টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে প্লেন থেকে নেমেছিলেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 মুজিববর্ষ