banglanewspaper

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে বাংলাদেশি দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় চারজন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ছুরিকাহত একজনের অবস্থা আশংঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) পর্তুগাল সময় রাত সাড়ে ৮টার দিকে লিসবনের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা মার্তৃম-মনিজ/মুরারিয়ায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের লিসবনের সাও জোসে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

দীর্ঘ সময় ধরে বাংলাদেশি দুই ব্যবসায়ীর মধ্যে চলতে থাকা বিরোধের জের ধরে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষের প্রায় ৪০ জনের মতো সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এর আগে গেল বছরের সেপ্টেম্বরে এ দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

এদিকে শনিবার সংঘর্ষের পরপরই পুলিশ সেখানে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। পুলিশ ও স্থানীয় সাংবাদিকরা সেখানে গুলির শব্দ শোনার বিষয়টিও নিশ্চিত করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন লিসবনের সান্তা মারিয়া মাইওর জইন্তার প্রেসিডেন্ট ড. মিগুয়েল কোয়েলো।

বাংলাদেশি কিছু সংবাদ মাধ্যমে এ ঘটনায় এক বাংলাদেশি নিহত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। খবরটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

এ সংঘর্ষের ঘটনায় লিসবনে বসবাসরত সাধারণ বাংলাদেশিদের মধ্যে বেশ আতঙ্ক ও সৃষ্টি হয়েছে। তারা কঠোরভাবে এমন ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। এমন হামলার জেরে পর্তুগালে বাংলাদেশ কমিউনিটির সম্মানহানির পাশাপাশি অনিয়মিত অভিবাসীদের জন্য আগামী দিনে অভিবাসন বিভিন্ন ইস্যুতে কঠোরতা আরোপ করার আশঙ্কাও করছেন অনেকে। তাই ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে এবং এহেন ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখছে কমিউনিটির মানুষেরা।

ট্যাগ: bdnewshour24 পর্তুগাল