banglanewspaper

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে জয়ের পথে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

এই সিটিতে মোট ১ হাজার ১৫০টি কেন্দ্রের মধ্যে ১ হাজার ৭৫টির ফলাফলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তাপস পেয়েছেন ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ইশরাক হোসেন পেয়েছেন ২ লাখ ১৯ হাজার ২৭ ভোট।

সেগুনবাগিচার শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ফল ঘোষণা করছেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্ম-সচিব ও ডিএসসিসির রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আব্দুল বাতেন। এই সিটির  ৭৫টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ২৩৪টি।

কোনোরূপ অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়া নির্বিঘ্নে সম্পন্ন হয়েছে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ভোট। মেয়র ও কাউন্সিলর নির্বাচনের জন্য গতকাল সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্নভাবে ভোট নেওয়া হয় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএমে)।

এবারের সিটি নির্বাচনে উ’সবমুখর পরিবেশে প্রচারণা চললেও ভোটের দিন কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক ঘোষিত ফলাফল থেকেও এর প্রতিফলন দেখা যায়। ভোটারের কম উপস্থিতির কথা প্রধান নির্বাচন কমিশনার থেকে শুরু করে প্রধান দুই প্রার্থী ও তাদের দলীয় নেতাদের মুখে শোনা গেছে।

গতকাল ভোটে বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কয়েকটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট কারচুপি, এজেন্ট ঢুকতে না দেওয়া, অন্যের ভোট জোর করে দেওয়ার অভিযোগ করে ১৯৮টি কেন্দ্রে ভোট স্থগিত চেয়েছে বিএনপি। শনিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার এবং যুগ্মসচিব বরাবর এক চিঠিতে এই আহ্বান জানায় বিএনপি।

তবে সরকারি দল আওয়ামী লীগ দাবি করছে, বিএনপি মূলত বিজয়ী হওয়ার জন্য এই নির্বাচনে অংশ নেয়নি। তারা অভিযোগ করার জন্যই ভোটে অংশ নিয়েছিল। তারা বায়বীয় অভিযোগ দিয়ে ভোটকে বিতর্কিত করতে চাচ্ছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 তাপস

জাতীয়
সম্পর্কের ৫০ বছর: রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীকে পুতিনের শুভেচ্ছা

banglanewspaper

রাশিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

বুধবার এক বার্তায় এ তথ্য জানায় ঢাকাস্থ রুশ দূতাবাস।

পুতিন তার শুভেচ্ছাবার্তায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, মস্কো ও ঢাকার মধ্যে বন্ধুত্ব ও পারস্পরিক শ্রদ্ধার যে নিরন্তর সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তার অর্ধশতাব্দী পেরিয়ে গেছে।

পুতিন বলেন, দুই দেশের যৌথ প্রচেষ্টায় ঢাকা ও মস্কোর দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা আরও জোরদার হবে।

বাংলাদেশ-রাশিয়ার কূটনৈতিক সম্পর্ক বেশ দৃঢ় এবং পুরনো উল্লেখ করে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন বা আজকের রাশিয়ান ফেডারেশন ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। পাকিস্তান-চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে রাশিয়ার সেই অবস্থান বাঙালি জাতিকে সাহস জুগিয়েছে।

বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জনের পর ১৯৭২ সালের ২৪ জানুয়ারি স্বীকৃতি দেয় সোভিয়েত ইউনিয়ন । পরের দিন দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়। যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের পুনর্গঠনেও দেশটির অবদান রয়েছে।

এই সম্পর্ক এগিয়ে নিতে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

পুতিন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য এবং সাফল্য কামনাসহ বাংলাদেশের নাগরিকদের শান্তি এবং সমৃদ্ধি কামনা করেন।

ট্যাগ:

জাতীয়
করোনার টিকা পেয়েছেন ১৪ কোটি ৬১ লাখ মানুষ, সংসদে প্রধানমন্ত্রী

banglanewspaper

দেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরুর পর গত ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ৮ কোটি ৯১ লাখের বেশি মানুষ করোনার প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও ৫ কোটি ৭০ লাখেরও বেশি মানুষ দ্বিতীয় ডোজ ও সাত লাখ মানুষ বুস্টার ডোজ নিয়েছেন বলে জানান তিনি।

বুধবার একাদশ জাতীয় সংসদের ষোড়শ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে টাঙ্গাইল-৬ আসনের সংসদ সদস্য আহসানুল ইসলামের (টিটু) লিখিত প্রশ্নের উত্তরে এ তথ্য জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশব্যাপী ভ্যাকসিন দেওয়া কার্যক্রমের আওতায় ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ৮,৯১,৬৩,৯৭৮ (আট কোটি একানব্বই লাখ তেষট্টি হাজার নয়শ আটাত্তর) জনকে ১ম ডোজ এবং ৫,৭০,২০,৮৩৪ (পাঁচ কোটি সত্তর লাখ বিশ হাজার আটশ চৌত্রিশ) জনকে ২য় ডোজসহ সর্বমোট ১৪,৬১,৮৪,৮১২ (চৌদ্দ কোটি একষটি লাখ চুরাশি হাজার আটশ বার) জনকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

বুস্টার ডোজ দেয়ার বিষয়ে তিনি জানান, ২০২১ সালের ২৮ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মোট ৭ লাখ ৪১ হাজার ২৬৫ জনকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্বজুড়ে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পরপরই সংক্রমণ প্রতিরোধে কার্যকরী ব্যবস্থা হিসেবে বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার বিষয়টি আমার সরকার অগ্রাধিকার দিয়েছে। এ লক্ষ্যে করোনা টিকা আবিষ্কার ও ব্যবহারের অনুমতি পাওয়ার আগে থেকেই আমরা টিকা সংগ্রহ ও টিকা দেওয়ার বিষয়ে সব উদ্যোগ নিয়েছিলাম। তারই ফল হিসেবে দেশব্যাপী ২০২১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি তারিখে কোভিড টিকা বিনামূল্যে দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয় এবং যা অব্যাহত রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারাবিশ্বের মতো দেশের কোভিড-১৯ মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনা করে বাংলাদেশ সরকারও চলমান কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমের আওতায় বুস্টার ডোজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ জাতীয় টিকাদান প্রযুক্তিগত উপদেষ্টা গ্রুপের (ন্যাশনাল ইম্যুনাইজেশন টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসরি গ্রুপ-নিটাগ) সুপারিশ অনুযায়ী এবং করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন কার্যক্রম বাস্তবায়ন সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির অনুমোদন সাপেক্ষে দেশব্যাপী গত ২০২১ সালের ২৮ ডিসেম্বর থেকে বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। বর্তমানে দেশে ষাটোর্ধ্ব জনগোষ্ঠী, সম্মুখসারির স্বাস্থ্যকর্মী ও বিদেশগামী কর্মীদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হচ্ছে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর যাদের ৬ (ছয়) মাস অতিক্রম হয়েছে তাদেরকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য জনগোষ্ঠীকেও বুস্টার ডোজের আওতায় আনা হবে। ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মোট ৭,৪১,২৬৫ (সাত লাখ একচল্লিশ হাজার দুইশ পঁয়ষট্টি) জনকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

ট্যাগ:

জাতীয়
‘সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়তে বাংলাদেশ-ভারত একসঙ্গে কাজ করবে’

banglanewspaper

সমৃদ্ধ ও শান্তিপূর্ণ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে দীর্ঘ মেয়াদে একসঙ্গে কাজ করার প্রত্যয় জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অভিন্ন লক্ষ্য বাস্তবায়নে বাংলাদেশ আগামী ৫০ বছর এবং বেশি সময় ধরে ভারতের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন তিনি।

ভারতের গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাঠানো এক বার্তায় শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০২১ সালটি বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি ঐতিহাসিক বছর। এ উপলক্ষ্যে দুই দেশের সম্পর্কের বার্ষিকী যুগান্তকারী অনুষ্ঠান ও সর্বোচ্চ পর্যায়ের সম্পৃক্ততার মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হয়েছে।’

ভারতের গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকার, জনগণ ও নিজের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও জনগণকে উষ্ণতম শুভেচ্ছা ও আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বাংলাদেশ-ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য ২০২১ সালের মার্চ মাসে নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরটি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনার সহৃদয় উপস্থিতি এই অনুষ্ঠানগুলো উদযাপনে বাড়তি উদ্দীপনা যোগ করেছিল এবং আমাদের দুই দেশের মধ্যকার বিদ্যমান চমৎকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় ও জোরদার করেছে।’

সরকারপ্রধান ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকার ও জনগণের সমর্থনের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করে বলেন, এটা দুই দেশের মধ্যে একটি অনন্য সম্পর্কের ভিত গড়ে দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৬ ডিসেম্বর বিশ্বব্যাপী যৌথভাবে ‘মৈত্রী দিবস’ উদযাপন দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান এই বিশেষ সম্পর্কের বহিঃপ্রকাশ। ১৯৭১ সালের এই দিনে ভারত একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়।

কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারির সময়ে বিদ্যমান ক্ষেত্রগুলো ছাড়াও অনেক নতুন নতুন সহযোগিতার ক্ষেত্র চিহ্নিত হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আমাদের দুই দেশের মধ্যেকার ঘনিষ্ঠ মৈত্রী, সহযোগিতা ও আস্থার অনন্য সম্পর্ক আরও জোরদার ও সুদৃঢ় হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে ‘আজাদিকা অমৃত মহোৎসব’ উদযাপন বিশেষভাবে আনন্দপূর্ণ হয়ে ওঠবে।’সূত্র: বাসস

ট্যাগ:

জাতীয়
শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা: সদর দপ্তর

banglanewspaper

পুলিশি হামলা ও হয়রানির অভিযোগ এনে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তর বলছে, এটি তদন্তসাপেক্ষ ব্যাপার। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তে শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হয়রানি বা হামলার ব্যাপারে সত্যতা পাওয়া গেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে চতুর্থ দিনের অধিবেশন সম্পর্কে বুধবার সন্ধ্যায় মিডিয়া ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি (অপারেশন্স মিডিয়া অ্যান্ড প্লানিং) মো. হায়দার আলী খান।

শাবিপ্রবির আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অর্থ দিয়ে সহায়তার অভিযোগে সাবেক কয়েকজন শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ সেখানে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাত দিন পর অনশন ভাঙিয়েছেন অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তিনি বলেছেন, আমিও ১০ হাজার টাকা দিলাম। পারলে পুলিশ আমাকে গ্রেপ্তার করুক।

এমন পরিস্থিতিতে জাফর ইকবালকে পুলিশ গ্রেপ্তার করবে কি-না জানতে চাইলে পুলিশ সদরদপ্তরের ডিআইজি (অপারেশন্স মিডিয়া অ্যান্ড প্লানিং) মো. হায়দার আলী খান বলেন, ‘এটি অবশ্যই তদন্তের বিষয়। তদন্ত যারা করছেন, তদন্তে যদি অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তাহলে কি শাবিপ্রবির বর্তমান বিব্রতকর পরিস্থিতি সম্পর্কে পুলিশ সদরদপ্তর অবগত নয়? সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে হায়দার আলী বলেন, ‘এখানে বিব্রতকর পরিস্থিতি কি না তা পুলিশের বলার কিছু নেই। বিশ্ববিদ্যালয় স্বতন্ত্র কিছু নিয়ম-কানুন আছে। তাদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনা বিভাগ রয়েছে। পুলিশ শুধু ল অ্যান্ড অর্ডার ম্যানেজমেন্ট, আইনশৃঙ্খলার বিষয়টি দেখে। তাও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনের আমন্ত্রণেই পুলিশ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়োজিত হয়।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, পুলিশ তাদের ওপর হামলা ও হয়রানি করেছে। সেটি পুলিশ সদরদপ্তর তদন্ত করছে কি-না বা কারো দায় দেখছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই পুলিশ সদরদপ্তর দেখছে, বিভাগীয় তদন্ত করছে। তদন্তসাপেক্ষে যদি কোনো অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে দায়ীদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী ছাত্রী হলের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামেন ওই হলের শিক্ষার্থীরা। পরদিন রবিবার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আইসিটি ভবনে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করেন। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে। ১৫ জানুয়ারি বিকালে ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েনের প্রতিবাদে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলে। এক পর্যায়ে পুলিশ লাঠিপেটা করে, কাঁদানে গ্যাস, রাবার বুলেট ও সাউন্ড গ্রেনেড ছুড়ে শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তাসহ অন্তত অর্ধশত আহত হন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয় শাবি কর্তৃপক্ষ।

তবে তা উপেক্ষা করে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কিলোতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অনশন শুরু করেন। প্রায় ২৮ জন শিক্ষার্থী অনশনে যোগ দেন। বুধবার সকালে তাদের অনশন ভাঙান অধ্যাপক জাফর ইকবাল।

ট্যাগ:

জাতীয়
কিছুটা কমেছে শনাক্ত, মৃত্যু ১৭

banglanewspaper

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কিছুটা কমেছে। আগের দিনের তুলনায় এদিন প্রায় ৫০০ জন কম শনাক্ত হয়েছেন। নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ৫২৭ জন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১৬ হাজার ৩৩ জনের। গত এক দিনে করোনায় মারা গেছেন ১৭ জন।

বুধবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, করোনায় দেশে মোট মারা গেছেন ২৮ হাজার ২৭৩ জন। আর মোট শনাক্ত হয়েছেন ১৭ লাখ ৩১ হাজার ৫২৪ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৯ হাজার ৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এই সময়ে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৩১.৬৪ শতাংশ। করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫২ জন। মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৬০ হাজার ছয়জন।

মারা যাওয়া ১৭ জনের মধ্যে ১৩ জন পুরুষ এবং চারজন নারী। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে চারজন, রাজশাহী, খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে মারা গেছেন। বরিশাল, সিলেট ও রংপুর বিভাগে কেউ মারা যাননি।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। গত ২০ নভেম্বর দেশে প্রথমবারের মতো এবং ৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয়বারের মতো করোনায় মৃত্যুহীন দিন দেখে বাংলাদেশ। এছাড়া বাকি সব দিনই মৃত্যু দেখেছে বাংলাদেশ।

গত ৫ আগস্ট দেশে সর্বোচ্চ ২৬৪ জন রোগী মারা যায়। ২৮ জুলাই সর্বোচ্চ শনাক্ত হয় ১৬ হাজার ২৩০ জন। তবে সেপ্টেম্বর থেকে তা কমতে শুরু করে। ডিসেম্বরের শুরু পর্যন্ত সেই ধারা অব্যাহত ছিল। যদিও ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে অব্যাহতভাবে বাড়ছে সংক্রমণ। অতি সংক্রামক ধরন ওমিক্রনের কারণে শনাক্ত দ্রুতগতিতে বাড়ছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

ট্যাগ: