banglanewspaper

ফরহাদ খান, নড়াইল : সাংঘাতিক নয়, সাংবাদিক হিসেবে দেশ ও জনগণের কল্যাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নড়াইল সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। 

বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আরো বলেন, দেশে হলুদ সাংবাদিকতার বিস্তৃতি ঘটেছে। সাংবাদিক হিসেবে পেশাদারিত্ব আচরণ না করে অনেকে মোটরসাইকেলে ‘প্রেস’ স্টিকার লাগিয়ে রেললাইনসহ যত্রতত্র ইয়াবা বিক্রি করে বেড়ায়। অসাংবাদিকতা করে এই পেশাকে কলঙ্কিত করছে অনেকেই। বিভিন্ন জেলায় সাপ্তাহিক ও দৈনিক পত্রিকার রেজিস্ট্রেশন নিয়ে স্ব স্ব পত্রিকায় ‘সাংবাদিক’ নিয়োগ বিজ্ঞাপন দিয়ে সংশ্লিষ্টরা অনেক ক্ষেত্রে অসাংবাদিকতার পথ সৃষ্টি করে দিচ্ছেন। অনেক পত্রিকার ক্ষেত্রে দেখা যায়, ছোট একটি নিউজেও ৬৪টি বানান ভুল। এর থেকে বেরিয়ে আসতে হলে পেশাদার সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বিভিন্ন জেলায় একাধিক প্রেসক্লাব বা সাংবাদিক সংগঠন সৃষ্টি না করে একটি জায়গায় সবাইকে আসতে হবে।    

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি আরো বলেন, আশা করছি ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে প্রশিক্ষিত সাংবাদিকের বাইরে কেউ থাকবেন না। এছাড়া সারাদেশের পেশাদার সাংবাদিকদের একটি তালিকা প্রকাশ করা হবে। এই প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তা দ্রুত প্রকাশ করতে পারব বলে আশাবাদী। 

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ‘সাংবাদিকতার নীতিমালা, প্রেস কাউন্সিল আইন ও আচরণবিধি এবং তথ্য অধিকার আইন অবহিতকরণ’ বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এসব বিষয়ে কথা বলেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব শাহ আলম এবং প্রেস কাউন্সিলের সদস্য দ্যা ঢাকা ডিপলোম্যাট ডটকমের সম্পাদক ও প্রকাশক আব্দুল মজিদ। কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইয়ারুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ রানা ও জেলা তথ্য অফিসার ইব্রাহিম আল মামুন।  

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, খেলাধূলা ও শিল্প-সাহিত্যে ঐহিত্যপূর্ণ জেলা নড়াইল। এখানে আমাদের মাননীয় এমপি স্বনামধন্য ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা, বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এস এম সুলতান, বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ, কবিয়াল বিজয় সরকার, উদয় শংকর, রবি শংকর, নীহার রঞ্জন গুপ্তসহ অনেক গুণীজনের জন্মস্থান। এ জেলায় শিক্ষাদীক্ষা ও সাংবাদিকতারও গৌরব রয়েছে। তবে জেলা শহরের পরিধি কম হওয়ায় এখানকার স্কুল, কলেজসহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা কম পরিলক্ষিত হয়। নড়াইল শহরের উন্নয়নও নির্দিষ্ট সীমারেখার মধ্যে হওয়ায় শহরের পরিধি বাড়ছে না। এজন্য শহরবাসীর সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।   

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় নড়াইলের তিনটি উপজেলায় কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিকেরা প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন। সোমবার সকাল ১০টার দিকে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়। প্রশিক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের সনদপত্র প্রদান করা হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 নড়াইল