banglanewspaper

বিয়ের আসরে প্রথম স্ত্রী ও তার পরিবারের হাতে মার খেলেন পাকিস্তানের করাচির এক ব্যক্তি। অভিযোগ উঠেছে, আসিফ রফিক নামের ওই ব্যক্তি স্ত্রীকে না জানিয়ে তৃতীয় বিয়ে করছিলেন। খবর পেয়ে বিয়ের আসরে হাজির হন আসিফের প্রথম পক্ষের স্ত্রী মাদিয়া। 

শুধু তাই নয়, বিয়ের আসরে ঢুকে তিনি আসিফকে পেটাতে শুরু করেন। তার জামাকাপড়ও ছিঁড়ে দেন।

২০১৪ সালে মাদিয়াকে বিয়ে করেন আসিফ। মাদিয়া দাবি করেন, তাকে না জানিয়ে জিন্না বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নারী কর্মীকে বিয়ে করেন তিনি। মাদিয়া সেই বিয়ের কথা জানতে পারলে তার কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন আসিফ। তখন দ্বিতীয় স্ত্রীকে বাপের বাড়ি রেখে এসে আবার তাকে বিয়ে করার শর্তে আসিফের সঙ্গে থাকতে রাজি হন মাদিয়া। সে অনুসারে মাদিয়াকে আবারো বিয়ে করেন আসিফ।

কিন্তু আবারো আসিফ বিয়ের পিঁড়িতে বসতেই তা জানতে পারেন মাদিয়া। বিয়ের আসরে মাদিয়া ও তার পরিবারের লোকজন আসিফকে ব্যাপক মারধর করেন। সেই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে। 

দেখুন সেই ভিডিও

 

ট্যাগ: bdnewshour24 বিয়ে