banglanewspaper

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় কায়দার গেরাকলে আটকে বোরো জমিতে সেচ দিতে পারছেন এক কৃষক। ঘটনাটি উপজেলার গড়াডোবা ইউনিয়নের আঙ্গারোয়া গ্রামে ঘটেছে।

সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গড়াডোবা ইউনিয়নের আঙ্গারোয়া গ্রামের সাদেকুর রহমান সরকার এই গ্রামের বাবুল মিয়ার কাছ থেকে দুই প্লটে ৪০ শতক ভূমি ৯৫ হাজার টাকা দিয়ে বন্ধক নেন ৩ বছর আগে। বাবুল মিয়ার ভাতিজা মাজহারুল ইসলাম মহসিনের সাথে অন্য একটি জায়গা নিয়ে সাদেকুর রহমান সরকারের শ্রুরুতা থাকায় ওই বন্ধকী ৩০ শতক জমিতে বোরো আবাদের জন্য সেচ সুবিধা দিচ্ছেন না মহসিন। যার ফলে ৩ বছর ধরে অনাবাদী রয়েছে সাদেুকুরের ওই বন্ধকী জমি। বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বার বার চেষ্ঠা করেও সুরাহ দিতে পারছেন না বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী সাদেকুর রহমান সরকার বলেন, বাবুল মিয়ার কাছ থেকে ১০ শতক ও ৩০ শতক দুটি আবাদী জমি ৯৫ হাজার টাকা দিয়ে বন্ধক রেখেছি ৩ বছর হয়েছে। ৩০ শতকের জমিটি চারদিকে মহসিন ও তার চাচাদের জমি। যে কারনে মহসিনের বাধাঁ দেয়ায় আমার ওই জমিতে বোরো মৌসুমে আবাদ করতে পারছিনা। এতে আমি আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছি।

এ ব্যাপারে মাজহারুল ইসলাম মহসিন বলে,আমার সাথে তার অন্য একটা জমি নিয়ে ঝামেলা আছে ওটা মিমাংসা না হলে তার জমিতে পানি দেব না।

ট্যাগ: bdnewshour24 কেন্দুয়া