banglanewspaper

সরকারি চাকরিজীবীরা অবসরে যাওয়ার পর পেনশনের টাকা তুলতে গিয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েন। এখন থেকে তাদের আর দুর্ভোগে পড়তে হবে না। অবসরে যাওয়া সরকারি চাকরিজীবীদের ভোগান্তি কমাতে ছুটি নগদায়ন মঞ্জুরির আদেশ বিল দাখিলের তিন দিনের মধ্যে পেনশনভোগীর ব্যাংক হিসাবে পেনশনের টাকা চলে যাবে।

অর্থ মন্ত্রণালয় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পেনশন আবেদন দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়ে পেনশন সহজীকরণ আদেশ ২০২০ জারি করেছে। সম্প্রতি অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. মোহাম্মদ আলী খানের সই করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ছুটি নগদায়ন মঞ্জুরির আদেশ বিল দাখিলের তিন কর্মদিবসের মধ্যে পেনশনভোগীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অর্থ চলে যাবে।

এছাড়া তাদের মাসিক সুবিধার অর্থ ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফারের (ইএফটি) মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এ কারণে প্রতিটি মন্ত্রণালয়, বিভাগ পেনশনের বিষয়টি দেখতে একজন করে কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে।

ওই আদেশে বলা হয়েছে, অবসরে যাওয়া সরকারি চাকরিজীবীদের ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর মৃত্যুর হলে তাদের পরিবারের অবসরজনিত সুবিধাদি ঠিক সময়ে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অর্থ বিভাগের জারি করা ‘বেসামরিক সরকারি কর্মচারীদের পেনশন মঞ্জুরি ও পরিশোধ সংক্রান্ত বিধি/পদ্ধতি অধিকতর সহজীকরণ আদেশ, ২০০৯’ কে নিম্নরূপ আদেশ দ্বারা প্রতিস্থাপন করার জন্য সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটি সরকারি চাকরিজীবীদের পেনশন সহজীকরণ আদেশ ২০২০ নামে অভিহিত হবে।

নতুন জারি করা ওই পেনশন সহজীকরণ আদেশ ২০২০-এ পেনশন সংক্রান্ত সব ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কর্মকর্তাদের বদলিতে এলপিসি ইলেকট্রনিক্যালি পূরণ করতে হবে এবং অনলাইনে প্রেরণ নিশ্চিত করতে হবে। কোনো সরকারি কর্মচারী পিআরএলে যাওয়ার তিন বছর আগের কোনো কাগজপত্র, রেকর্ড বা না দাবি প্রত্যয়নপত্র তার কাছে চাওয়া যাবে না।

পেনশন সহজীকরণ আদেশে আরও বলা হয়, অবসরের আগে ইএলপিসি পাওয়ার এক মাসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট চাকরিজীবীকে নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। ওই আবেদনে প্রাপ্য ছুটি, ছুটি নগদায়ন, ভবিষ্যৎ তহবিলের স্থিতি উল্লেখ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিতে হবে। এই আবেদন পাওয়ার ৫ মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করবে।

বিশেষ করে সরকারের আদায়যোগ্য টাকার পরিমাণ নির্ধারণ করে আদায়ের ব্যবস্থা করবে। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার ৩ মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ অবসরোত্তর ছুটি, ছুটি নগদায়ন ও পেনশন মঞ্জুরিপত্র জারি করবেন।

ছুটি নগদায়ন মঞ্জুরির আদেশ পাওয়ার পর বিল জমা দেওয়ার তিন কার্যদিবসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট চাকরিজীবীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ওই অর্থ চলে যাবে। প্রত্যেক মাসের পেনশন পরবর্তী মাসের এক তারিখে পেনশনারের ইএফটি-এর মাধ্যমে তার ব্যাংক হিসাবে পাঠাতে হবে।

পেনশন মঞ্জুরির কাগজপত্র প্রাপ্তির দশ দিনের মধ্যে পেনশন সংক্রান্ত হিসাব যথাযথভাবে যাচাইয়ের পর সংশ্লিষ্ট হিসাবরক্ষণ অফিস পেনশন পরিশোধ আদেশ (পিপিও) জারি করা হবে। আনুতোষিকের টাকার চেক বা ইএফটি পিআরএল শেষ হওয়ার পর দিন চূড়ান্ত অবসরগ্রহণের দিন সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর নিকট বা ব্যাংক হিসাবে প্রেরণ নিশ্চিত করতে হবে। অনুত্তোলিত পেনশন এবং বকেয়া পেনশনের ক্ষেত্রে ৭ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তিকরণ: ইএফটি জেনারেট করতে হবে। অডিট আপত্তি থাকলে তিন মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে। বিভাগীয় মামলা থাকলে তা চূড়ান্ত অবসরগ্রহণের এক বছরের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ব্যাংক অ্যাকাউন্টে

অর্থ-বাণিজ্য
ঈদ উপলক্ষে ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট আসছে

banglanewspaper

ঈদ আনন্দ বাড়িয়ে দেয় টাকার নতুন নোট। ছোট-বড় সবারই পছন্দ নতুন টাকা। ঈদ সালামিতে নতুন টাকার জুড়ি নেই। বকশিশ, দান-খয়রাত কিংবা ফিতরাতেও অনেকেই নতুন টাকা বিতরণ করেন। তাই ঈদে গ্রাহকদের কাছে নতুন টাকার আকর্ষণ একটু বেশি। গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করে প্রতিবছর ঈদের আগ মুহূর্তে বাজারে নতুন টাকার নোট ছাড়ে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এবারের ঈদে অতিরিক্ত চাহিদা থাকায় বাজারে ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বুধবার (২৯ জুন) থেকে ৪০টি ব্যাংকের মাধ্যমে বাজারে নতুন টাকা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ২৯ জুন থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত (সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিন ছাড়া) ঢাকা অঞ্চলের বিভিন্ন তফসিলি ব্যাংকের শাখায় বিশেষ ব্যবস্থায় ১০, ২০ ও ১০০ টাকা মূল্যমানের নতুন নোট বিনিময় করতে পারবেন সাধারণ মানুষ। তবে এক ব্যক্তির একাধিকবার নোট উত্তোলনের সুযোগ না থাকলেও তিনি চাইলে কাউন্টার থেকে যেকোনো পরিমাণ ধাতব মুদ্রা নিতে পারবেন। এটিএম বুথ থেকেও গ্রাহকরা নতুন টাকা পাবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রতি ঈদেই নতুন টাকার চাহিদা থাকে। এসব চাহিদা বিবেচনায় এবারের ঈদে ২৫ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছাড়ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে চাহিদা বাড়লে যেন কোনো সমস্যার সৃষ্টি না হয় সে ব্যবস্থাও রেখেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

তিনি জানান, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন ব্যাংকের ৪০টি শাখায় ১০, ২০ ও ১০০ টাকার নতুন নোট বিনিময় করা হবে। এই তিন নোট ছাড়াও প্রতিটি শাখায় মোট এক কোটি ৬১ লাখ টাকার বিভিন্ন মূল্যমানের নোট সরবরাহ করা হবে।

উল্লেখ্য, ঈদুল ফিতরেও ৩২টি ব্যাংকের মাধ্যমে ২৩ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছেড়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

ট্যাগ:

অর্থ-বাণিজ্য
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ঋণ দেওয়ার নির্দেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

banglanewspaper

দেশের উত্তর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সৃষ্ট সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের কৃষি ঋণ সুবিধা প্রদানের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার (২৭ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষি ঋণ বিভাগের (এসিডি) পরিচালক মো. আলী মোল্লা স্বাক্ষরিত সার্কুলার জারি করা হয়।

সার্কুলারে বলা হয়, সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও দোহাকোনা জেলার পাশাপাশি দেশের উত্তরাঞ্চলে বন্যা কবলিত জেলাসমূহ- শেরপুর, জামালপুর, রংপুর, লালমনিরহাট এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক চিহ্নিত বন্যা কবলিত অন্যান্য জেলাসমূহের জন্যও এ ঋণ সুবিধা প্রযোজ্য হবে।

এতে আরও বলা হয়, কৃষক গ্রাহক পর্যায়ে ৪ শতাংশ কৃষি ঋণ বিতরণের জন্য গঠিত তিন হাজার কোটি টাকার বিশেষ পুনঃঅনস্ক্রিমের আওতার বরাদ্দপ্রাপ্ত ব্যাংকগুলোকে তাদের অব্যবহৃত স্থিতির ন্যূনতম ৪০ শতাংশ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জেলাসমূহে বিতরণ নিশ্চিত করতে হবে।

এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে সার্কুলারে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, দেশের ১০ জেলায় বন্যায় এখন পর্যন্ত ৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে সিলেট বিভাগে।

ট্যাগ:

অর্থ-বাণিজ্য
মুক্তিযোদ্ধা, বৃদ্ধ ও বিধবাদের ব্যাংকে বিশেষ ব্যবস্থায় সেবা দিতে নির্দেশ

banglanewspaper

ব্যাংকের সব শাখায় বীর মুক্তিযোদ্ধা, বয়োবৃদ্ধ, বিধবা এবং বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন গ্রাহকদের অগ্রাধিকার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার (২২ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক (বিআরপিডি) মো. আলী আকবর ফরাজী এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে সব ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছেন।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ব্যাংকিং সেবা গ্রহণের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা, বয়োবৃদ্ধ, বিধবা এবং বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন গ্রাহকরা ব্যাংকে গমন করে থাকেন। এ ধরনের গ্রাহককে ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার জন্য ব্যাংকগুলোতে বিশেষ ব্যবস্থা না থাকায় তাদেরকে বিভিন্ন অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়। অন্যান্য গ্রাহকদের তুলনায় এই গ্রাহকরা অপেক্ষাকৃত সংবেদনশীল হয়ে থাকেন। তাই তাদের সেবা প্রদানে বর্ধিত সুযোগ-সুবিধা প্রদানের বিষয়টি বিবেচিত হওয়ার আবশ্যকতা রয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বয়োবৃদ্ধ, বিধবা এবং বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন গ্রাহকদেরকে ব্যাংকিং সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে এখন থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা, বয়োবৃদ্ধ, বিধবা এবং বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন গ্রাহকের জন্য ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়সহ সব শাখা প্রাঙ্গণে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বসার ব্যবস্থা সংরক্ষণ করতে হবে। এ ছাড়া এই ধরণের গ্রাহকদের কাঙ্ক্ষিত ব্যাংকিং সেবা নির্বিঘ্ন সহজ ও দ্রুততম সময়ে সম্পন্ন করতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এই ধরনের গ্রাহকের ব্যাংকিং সেবা গ্রহণে সহযোগিতা দেওয়ার লক্ষ্যে ব্যাংকগুলো তাদের সব শাখাসহ প্রত্যেকটি সার্ভিস সেন্টারে একজন কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে সুনির্দিষ্টভাবে দায়িত্ব প্রদান করবে। ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো।

ট্যাগ:

অর্থ-বাণিজ্য
দাম কমলো সয়াবিন তেলের

banglanewspaper

প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ৬ টাকা কমিয়ে ১৯৯ টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার। সোমবার (২৭ জুন) থেকে নতুন এ দাম কার্যকরা হবে।

রোববার (২৬ জুন) বিকেলে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স ও বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১ লিটার খোলা সয়াবিন তেলের দাম ১৮০ টাকা এবং ৫ লিটার সয়াবিন তেলের বোতলের দাম ৯৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এর আগে, রোববার সকালে তেলের দাম দুই-একদিনের মধ্যে কমতে পারে বলে জানিয়েছিলেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ। এর কয়েক ঘণ্টা পরেই সয়াবিন তেলের দাম কমার ঘোঘণা এলো।

উল্লেখ, সর্বশেষ গত ৯ জুন সয়াবিন তেলের দাম প্রতি লিটারে ৭ টাকা বাড়িয়ে ২০৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এর আগে গত ৫ মে সয়াবিন তেলের দাম ৩৮ টাকা বেড়ে ১৯৮ টাকা হয়েছিল।

ট্যাগ:

অর্থ-বাণিজ্য
অর্থ আত্মসাতের দায়ে উত্তরা ফাইন্যান্সের এমডিকে অপসারণ

banglanewspaper

অর্থ আত্মসাতের দায়ে উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম শামসুল আরেফিনকে অপসারণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। অর্থ আত্মসাতের পাশাপাশি অর্থ আত্মসাতে অন্যদের সহায়তা ও আর্থিক প্রতিবেদনে তথ্য গোপনের অভিযোগ করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এসব অনিয়ম প্রথমে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিদর্শনে ধরা পড়ে, পরে নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান রহমান রহমান হকের (কেপিএমজি) প্রতিবেদনেও উঠে আসে একই তথ্য। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতেও পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ এ বিষয়ে উত্তরা ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যান এবং এমডিকে এ বিষয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, সিএ ফার্ম রহমান রহমান হকের (কেপিএমজি) করা বিশেষ নিরীক্ষা প্রতিবেদনে প্রতিষ্ঠানটিতে ঘটা ব্যাপক আর্থিক অনিয়মের সঙ্গে জড়িত থেকে প্রতিষ্ঠান ও আমানতকারীদের জন্য ক্ষতি করায় প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম শামসুল আরেফিনকে ২৩ জুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীর পদ হতে অপসারণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে উত্তরা ফাইন্যান্সের এমডি এস এম শামসুল আরেফিনের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

উত্তরা ফাইন্যান্স পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ১৯৯৭ সালে।

ট্যাগ: