banglanewspaper

মহান আল্লাহ মানুষের যাবতীয় প্রয়োজন পূরণ করে থাকেন। তাই আল্লাহর কাছেই মানুষকে চাইতে হবে। জুতার ফিতার প্রয়োজন হলেও রাসূল (সা.) আল্লাহর কাছে চাইতে বলেছেন। আল্লাহর কাছে চাইলে আল্লাহ খুশী হন এবং তিনি বান্দার দো’আ কবুল করেন। নবী করীম (সা.) বলেন,  الدُّعَاءُ هُوَ الْعِبَادَةُ‘ অর্থাৎ দো’আই ইবাদত’। অন্যত্র তিনি বলেন, أَفْضَلُ الْعِبَادَةِ الدُّعَاءُ অর্থাৎ ‘উত্তম ইবাদত হচ্ছে দো‘আ’। আসুন এবার জেনে নেই কোনো কারণে কাউকে গালি দিয়ে ফেললে যে দো’আ পড়তে হয়।

দো’আ: اللَّهُمَّ فَأَيُّمَا مُؤْمِنٍ سَبَبْتُهُ فَاجْعَلْ ذَلِكَ لَهُ قُرْبَةً إِلَيْكَ يَوْمَ الْقِيَامَةِ (বুখারী (ফাতহুল বারীসহ) ১১/১৭১, নং ৬৩৬১; মুসলিম ৪/২০০৭, নং ৩৯৬, আর তার শব্দ হচ্ছে, “ফাজ‘আলহা লাহূ যাকাতান ও রাহমাতান”। অর্থাৎ ‘সেটা তার জন্য পবিত্রতা ও রহমত বানিয়ে দিন’।)

উচ্চারণ: আল্লা-হুম্মা ফাআইয়্যূমা মু’মিনিন্ সাবাবতুহু ফাজ্‘আল যা-লিকা লাহু কুরবাতান ইলাইকা ইয়াউমাল ক্বিয়া-মাতি

অর্থ: হে আল্লাহ! যে মুমিনকেই আমি গালি দিয়েছি, তা তার জন্য কিয়ামতের দিন আপনার নৈকট্যের মাধ্যম করে দিন।

ট্যাগ: bdnewshour24 আল্লাহ