banglanewspaper

সাভার প্রতিনিধিঃ সাভারের আশুলিয়ায় গভীর রাতে পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে স্বামী।এ ঘটনায় নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে আশুলিয়ার নরসিংপুরে ইটখোলা এলাকা এই ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ শামসুন্নাহার (২২) জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার চরভদ্রাসন গ্রামের আব্দুস সালামের মেয়ে। সে স্বামী গার্মেন্ট শ্রমিক জামিল হোসেনের (৩০) সাথে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতো। আটক জামিল হোসেন জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার বাঘাডোবা গ্রামের শাহজাহান হোসেনের ছেলে। 

নিহতের চাচা মোহাম্মদ লুৎফর জানান, গত চার দিন আগেও ভাতিজি শামসুন্নাহার ও তার জামাইয়ের সাথে পারিবারিক কলহ হয়। এঘটনার পর রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে জলিল তার শ্বশুর বাড়িতে ফোন করে তার স্ত্রী শামসুন্নাহার মারা গেছে বলে জানায়। পরে সে আশুলিয়া থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিরাজুল ইসলাম জানান, পারিবারিক কলহের জেরে ওই গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার স্বামী থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেছে। এ ঘটনায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24 স্ত্রী হত্যা আত্মসমর্পণ স্বামী