banglanewspaper

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে টেলিকম ব্যবসায়ী মাসুদকে প্রেপ্তার করেছে কেন্দুয়া থানা পুলিশ। এ ঘটনাটি কেন্দুয়া উপজেলার মাসকা ইউনিয়নে বালিজুড়া গ্রামে ঘটেছে।

স্থানীয় ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের সাতাশি মোড়ে একই ইউপি’র বালিজুড়া গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে মাসুদ ওরফে করিম টেলিকম ব্যবসা করতেন। ওই দোকানে মেমোরিকার্ড লোড করতে গেলে মাসুদের সাথে পরিচয় হয় মাদ্রাসা ছাত্রীটির। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ছাত্রীটিকে নিয়ে মাসুদ তার আত্মীয় বাড়িতে ও জল্লী পার্কে অবাধে মেলামেশা করে।

জানা যায়, গত ১ ফেব্রুয়ারি রাতে মেয়েটিকে বাড়িতে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়ভাবে সমঝোতার চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে মেয়েটি থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাৎক্ষণিক ধর্ষকে মাসুদকে গ্রেপ্তার করে সোমবার আদালতে সোর্পদ করেছে থানা পুলিশ।

কেন্দুয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, নির্যাতিত মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে। অপরদিকে ধর্ষক মাসুদকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 কেন্দুয়া ধর্ষণ