banglanewspaper

রাজধানীর ডেমরায় ফারিয়া আক্তার দোলা (৫) ও নুসরাত জাহান (সাড়ে চার বছর) নামে দুই শিশুকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে দুইজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জয়শ্রী সমদ্দার এই আদেশ দেন। 

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন-গোলাম মোস্তফা ও আজিজুল বাওয়ানী। রায় ঘোষণার সময় তাদের কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। রায়ের পর তাদের ফের কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালতের স্টেনোগ্রাফার গৌতম নন্দী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত বছরের ৭ জানুয়ারি রাতে ডেমরার ‘নাসিমা ভিলা’র মোস্তফার ঘর থেকে নুসরাত জাহান ও ফারিয়া আক্তার দোলার মরদেহ পাওয়া যায়। ওই দিন দুপুর থেকে নিখোঁজ ছিল তারা। 

ঘটনার পরদিন (৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নুসরাতের বাবা পলাশ হাওলাদার বাদী হয়ে ডেমরা থানায় একটি মামলা (নং-১২)করেন।

ঘটনার দুইদিন পর অভিযুক্ত গোলাম মোস্তফা ও আজিজুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত দুইজন জানান, লিপস্টিক দিয়ে সাজিয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে শিশু নুসরাত ও ফারিয়াকে ঘরে ডেকে নেন গোলাম মোস্তফা। তবে তাদের উদ্দেশ্য ছিল ধর্ষণ।

এই উদ্দেশ্যে চাচাত ভাই আজিজুল বাওয়ানীকে আগেই বাসায় খবর দিয়ে আনেন মোস্তফা। ঘরে ডেকে প্রথমে শিশু দুটিকে নিজের স্ত্রীর লিপস্টিক দিয়ে সাজায় মোস্তফা। এরপর তারা দুইভাই মিলে ইয়াবা সেবন করে শিশু দুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের চিৎকারে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে ফারিয়াকে গলাটিপে হত্যা করে আজিজুল। নুসরাতকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে হত্যা করে মোস্তফা। 

হত্যাকাণ্ডের ১৬ দিনের মাথায় আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। চার্জশিটে গোলাম মোস্তফা ও আজিজুল বাওয়ানী ওরফে আজিজুল বাওলীর নাম উল্লেখ করা হয়। হত্যাকাণ্ডের প্রায় ১৪ মাস পর মামলাটির রায় ঘোষণা করে আদালত।

ট্যাগ: bdnewshour24 ফাঁসি