banglanewspaper

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২য় ওয়ানডেতে প্রথম ইনিংস এ বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩২২ রান।রেকর্ড ১৫৮ রান করেছেন ওপেনার তামিম ইকবাল।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আজ বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছিল বেশ ভালো। রান উঠছিল বেশ দ্রুতই। তবে ওপেনিং জুটির সমাপ্তি ঘটে দুর্ভাগ্যজনকভাবে। তামিমের শট বোলার মুম্বার পায়ে লেগে ভেঙে দেয় ননস্ট্রাইকিং প্রান্তের স্টাম্প। লিটন দাস ছিলেন দাগের বাইরে। গত ম্যাচে সেঞ্চুরি করা লিটন ১৪ বলে ৯ রান করে ফেরেন।

এরপর উইকেটে আসা নাজমুল হোসেনও রান আউটের শিকার। এটির জন্য কিছুটা হলেও তামিমকে দায়ী করা চলে। রানটা প্রথমে নাজমুল নিতে চাননি। ওয়েসলি মাধেভেরাকে শর্ট ফাইন লেগে খেলেছিলেন নাজমুল। কিন্তু অন্য প্রান্ত থেকে রান নিতে পড়িমরি করে ছুটেছিলেন তামিম। পৌঁছে গিয়েছিলেন অন্যপ্রান্তেও হ্যাঁ-না দ্বিধায় ভুগে নাজমুল শেষ পর্যন্ত তামিমকে বাঁচাতেই নিজের উইকেট উৎসর্গ করেন তিনি।

 তামিমের সঙ্গে জুটি বেঁধে মুশফিক আর মাহমুদউল্লাহ দলকে এগিয়ে নেন অনেকটা পথ। তামিম-মুশফিকের জুটি ছিল ৮৭ রানের। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে আরও ১০৬ রান যোগ করেন তিনি। মুশফিক ৫০ বলে ৫৫ করে ফেরেন। তিনি বাউন্ডারি মেরেছেন ৬টি। মাহমুদউল্লাহ ৫৭ বলে ৪১ করে আউট হন। এরপর মোহাম্মদ মিঠুনের সঙ্গে ৩৪ রানের আরও একটি জুটি গড়েন তামিম।

মুশফিককে ফেরান মাধেভারে, মোতুমবোদজির ক্যাচ বানিয়ে। শুমার বলে বাউন্ডারি লাইনে মাধেভারেরই দুরন্ত এক ক্যাচে শেষ হয় মাহমুদউল্লাহর ইনিংস।

রেকর্ড ১৫৮ রান করে তামিম আউট হন মুম্বার বলে।

শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন মিঠুন—১৮ বলে ৩২ রান করে। কিন্তু অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা, মেহেদী হাসান মিরাজ আর তাইজুল ইসলাম মিঠুনকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি। শেষের দিকের ব্যর্থতাতেই তামিমের দুর্দান্ত ইনিংস আর মুশফিকের ফিফটির পরেও দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথম ম্যাচের সংগ্রহ ছাড়িয়ে যাওয়ার আক্ষেপটা থেকে যাচ্ছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 বাংলাদেশ তামিম