banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি : মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম এমপির বিরুদ্ধে দুর্নীতির নানা অভিযোগ এনে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল।

আজ বুধবার পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে দুপুর ১২ টায় শুরু হওয়া ঘন্টা ব্যাপী এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল। 

এ সময় সাবেক এমপি একেএমএ আউয়াল অভিযোগ করে বলেন, গতকাল মঙ্গলবার দুদকে মামলায় তার জামিন না মঞ্জুর করতে পিরোজপুর জেলা দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক আঃ মান্নানকে প্রভাবিত করছে মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম। তাছাড়া মন্ত্রী তার প্রভাব খাটিয়ে দলের ত্যাগী নেতা কর্মীদের অবমূল্যায়ণ করে নতুন ও জামায়াত-বিএনপিতে সম্পৃক্ত ব্যক্তিদের বিভিন্নস্থানে মন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসেবে মনোনীত করেছেন।

তাছাড়া তার ভাইদের অনৈতিকভাবে ঠিকাদারী কাজে যুক্ত করে কয়েক শত কোটি টাকার ঠিকাদারী কাজ বাগিয়ে নিয়েছেন। আলোচিত জি.কে শামীমের কাছ থেকে ৩টি গাড়ি উপঢৌকন হিসেবে নিয়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকার ঠিকাদারী কাজ দেয়। 

সর্বপোরি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করা নিয়ে বর্তমান পিরোজপুর-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম মিথ্যাচার করেছেন বলে অভিযোগ করে সাবেক সাংসদ আউয়াল বলেন, শ.ম রেজাউল করিম ১৯৬১ সালে জন্ম গ্রহন করেছে হিসেব অনুযায়ী ৭১ সালে তার বয়স ৯ বছর । একজন বাচ্চা কিভাবে সেসময় মুক্তিযুদ্ধে যায়। মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে এহেন মিথ্যাচার ও নিজেকে স্বঘোষিত মুক্তিযোদ্ধা দাবী করা সঠিক নয় । এর জন্য তার জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিৎ। 

তবে অভিযোগের বিষয়ে মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম জানান, সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সবৈব ভাবে অসত্য ও মিথ্যাচার।

ট্যাগ: bdnewshour24 পিরোজপুর