banglanewspaper

করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে একান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকেই বেরোচ্ছে না  চীনের অনেক শহরের মানুষজন। এ ভাইরাস আতঙ্কে চীন পরিণত হয়েছে ভুতুড়ে এক দেশে। এই পরিস্থিতিতে চীনে  বন্ধ রয়েছে অনেক সেলুন বা হেয়ার স্টাইল পার্লারও। তারপরও যে ক’টি সেলুন বা হেয়ার স্টাইল পার্লার খোলা রয়েছে, সেখানকার স্টাইলিস্ট বা নরসুন্দররাও থাকছেন সর্বোচ্চ সতর্কতায়। তবে সতর্কতার নতুন এক মাত্রা দেখা গেল কিছু সেলুনে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া কিছু ছবি ও ভিডিওতে দেখা গেছে, মাস্ক পরিহিত নরসুন্দররা কাস্টমার বা গ্রাহকের চুল কাটছেন চার ফুট লম্বা বিশেষ স্টিকের সাহায্যে। 

অর্থাৎ ওই স্টিকে চিরুনি এবং শেভার বা ছাঁটাইযন্ত্র গেঁথে নরসুন্দররা দূর থেকে বিশেষ পদ্ধতিতে কাস্টমারের ছুল ছেঁটে বা স্টাইল করে দিচ্ছেন। হেয়ার ড্রাই বা ব্রাশ করার ক্ষেত্রেও একই পদ্ধতি অনুসরণ করতে দেখা যায় ওই নরসুন্দরদের। এসময় অবশ্য কাস্টমারদের মুখেও মাস্ক দেখা যায়।

যদিও সরাসরি হাতে চুল ছাঁটা বা স্টাইল করার মতো নিখুঁত হচ্ছিল না কাজটি। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে এই পদ্ধতির ছুল ছাঁটাইয়ে অখুশি নন কাস্টমাররাও। 

ক’দিন আগে দক্ষিণ-পশ্চিমের প্রদেশ সিচুয়ানের একটি সেলুনে ‘লং-ডিস্ট্যান্স হেয়ারকাট’র ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন এক হেয়ার স্টাইলিস্ট। এ হেয়ার স্টাইলিস্ট তাতে লেখেন, ‘আমাদের সুরক্ষিত থাকতে হলে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।’

গত জানুয়ারিতে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৩ হাজারে অধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে আক্রান্ত হযেছে অনেক। ভয়াবহ এ ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে চীনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তাদের নাগরিকদের সর্বনিম্ন দেড় মিটার (প্রায় ৫ ফিট) দূরত্বে থাকার পরামর্শ দিয়েছে। 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের লোকজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে জানা যায়। পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নেয়ায় অনেক দেশই চীনা এমনকি বিদেশি নাগরিকদের আগমনে কড়াকড়ি আরোপ করেছে। এমনকি ওমরাহ পালনও সাময়িক নিষিদ্ধ করেছে সৌদি আরব।

ট্যাগ: bdnewshour24 করোনাভাইরাস