banglanewspaper

করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার দুটো উপায় আছে। এক, এর সংক্রমণ ও  বিস্তার বন্ধ করা,  দ্বিতীয়ত, শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা মজবুত করা। করোনাভাইরাসে যারা মারা যাচ্ছেন, তাদের বেশিরভাগেরই বয়স ষাট থেকে সত্তরের ওপরে। বয়স্ক মানুষের শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা ও বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের কার্যক্ষমতা বয়স বাড়ার সাথে সাথে কমতে থাকে।

ভিটামিন সি, ভিটামিন ডি, জিংক শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বহুগুণ বৃদ্ধি করে। কীভাবে করে? আমাদের শরীরে এক ধরনের রক্তকণিকা আছে যার নাম শ্বেত রক্তকণিকা। এই শ্বেত রক্তকণিকায় থাকে নিউট্রোফিল ও মনোসাইট থেকে উৎপন্ন ম্যাক্রোফেইজ। এই ম্যাক্রোফেইজের কাজ হলো শরীরের মৃত কোষ, বহিরাগত বস্তু, ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসকে খেয়ে ফেলে বা ধ্বংস করে শরীরকে বিপদ বা রোগমুক্ত রাখা। এই প্রক্রিয়াকে বলা হয় ফেগোসাইটোসিস।

পর্যাপ্ত ভিটামিন সি খেলে তা এই নিউট্রোফিল ও ম্যাক্রোফেইজে জমা হয় এবং ম্যাক্রোফেইজের ফেগোসাইটিক কর্মকাণ্ডকে ( মৃত কোষ,  বহিরাগত বস্তু, ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস খেয়ে ফেলা বা ধ্বংস করা) বহুগুণ বৃদ্ধি করে।

সুতরাং প্রচুর পরিমাণে কমলা, লেবু, পেয়ারা, ব্রোকলি, পালং শাক,  স্ট্রবেরি, ক্যাপসিকাম, আমলকি জাতীয় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খান। সাথে প্রচুর পানি। ভিটামিন সি পানিতে দ্রবণীয়। সুতরাং বেশি ভিটামিন সি খেলে তাতে ক্ষতির সম্ভাবনা নেই।

লেখক: ডেফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান

ট্যাগ: bdnewshour24 করোনা