banglanewspaper

এম,লুৎফর রহমান, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশালে সেলিনা আক্তার (৩৫) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শুক্রবার (১৩ মার্চ) রাত ৯টায় ঘোড়াশাল পৌর এলাকার করতেতৈল গ্রামের প্রবাসী স্বামীর বসতঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সেলিনা আক্তার করতেতৈল গ্রামের জমির আলীর ছেলে দুবাই প্রবাসী ইদ্রিস আলীর স্ত্রী।পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, পলাশের বাগপাড়া গ্রামের রমজান আলীর মেয়ে সেলিনা আক্তারের সাথে দুবাই প্রবাসী ইদ্রিস আলীর ১৬ বছর আগে বিয়ে হয়।তাদের সংসারে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।বড় ছেলে ফাহিম স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণী ও ছোট ছেলে তামিম ৫ম শ্রেণীতে পড়ে।

ঘটনার দিন শুক্রবার (১৩ মার্চ) বিকেল ৩টার দিকে নিহতের ছেলে ফাহিম বাড়ি থেকে বের হয়।তারপর মাগরিবের আযানের প্রাক্কালে বাড়িতে প্রবেশ করে।তখন সে ঘরের দরজা তালাবদ্ধ অবস্থায় পায়।এ অবস্থায় ফাহিম পাশের একটি কাঁঠাল গাছ বেয়ে ঘরের ছাদে উঠে।এর পর সিঁড়ি বেয়ে ভিতরে প্রবেশ করে এবং পড়ার টেবিলে বসে।এক পর্যায়ে মশার কয়েল আনতে গিয়ে তার মায়ের রুমে যায় ফাহিম।সেখানে গিয়ে তার মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করে।এ চিৎকারের শব্দ শুনে পাশের বাড়ির লোকজন ছুটে আসে।পরে এ ঘটনায় পলাশ থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

নিহত গৃহবধূর পিতা রমজান আলী জানান, বিল্ডিংয়ের ছাদে মুরগীর খামারকে কেন্দ্র করে স্বামী ইদ্রিস আলীর ছোট ভাই মকবুলের সাথে বিভিন্ন সময়ে ঝগড়া হতো।পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসির উদ্দিন জানান, ঘটনার খবর পেয়ে নিহত সেলিনা আক্তারের  ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।পরে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 লাশ উদ্ধার