banglanewspaper

চলমান করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে বহুজাতিক টেলিকম কোম্পানি গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক এবং বহুজাতিক কোম্পানি ইউনিলিভার বাংলাদেশ তাদের কর্মীদের বাসায় থেকে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে কর্মীদের বাসা থেকে কাজ করতে বলে সোমবার (১৬ মার্চ) নির্দেশনা জারি করেছে বাংলালিংক। প্রতিষ্ঠানটি প্রাথমিকভাবে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত কর্মীদের বাসা থেকে অফিস করতে বলেছে। 

প্রতিষ্ঠানটির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, আপাতত ভিপিএন চালু করে দেওয়া হয়েছে এবং কিছু সফটওয়ারে এক্সেস দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে গ্রুপভিত্তিক কর্মীদের প্রতিদিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কাজ করা হবে। আর বিশেষ ক্ষেত্রে অফিসে যেতে বলা হয়েছে, তবে দল বেঁধে নয়। সে ক্ষেত্রেও বিশেষ ধরনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রায় এগারশো কর্মীকে বাসায় বসে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একইভাবে গ্রামীণফোনের কর্মীদেরও বাসা থেকে কাজ করার দির্দেশনা দেওয়া হয়। প্রতিষ্ঠানটির হেড অব এক্সটার্নাল কমিউনিকেশন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসান জানান, করোনা সতর্কতায় সোমবার থেকে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। তবে যেসব ক্ষেত্রে গ্রাহককে সরাসরি জরুরি সেবা দিতে হবে সেখানে কর্মীরা বিশেষভাবে কাজ করবেন। 

এ ক্ষেত্রেও যথাসম্ভব সকল নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করে তারপর সেবা দিতে বলা হয়েছে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা দিতে উৎসাহিত করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ইউনিলিভার বাংলাদেশও গত শুক্রবার (১৩ মার্চ) একই নির্দেশনা দিয়েছে তাদের কর্মীদের। 

গুগল, ফেসবুক এবং মাইক্রোসফটের পথ অনুসরণ করে সকল বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানই এখন আক্রান্ত দেশগুলোতে বাসায় থেকে কর্মীদের অফিস করার নির্দেশ দিচ্ছে।

এছাড়াও দেশীয় সৃজনশীল প্রতিষ্ঠান ম্যাগনিটো তার কর্মীদের আগামী ২২ মার্চ পর্যন্ত বাসায় থেকে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে। প্রাথমিকভাবে এই ৫ দিনের ট্রায়ালে তারা দেখবেন, অনলাইনে কাজ করা কতটুকু সম্ভব হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 গ্রামীণফোন বাংলালিংক ইউনিলিভার