banglanewspaper

সাভার প্রতিনিধিঃ সাভারের বিরুলিয়ায় নিজ বাসার বাথরুমে সপ্তম শ্রেণী পড়ুয়া ১২ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবেশী এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

বুধবার সাভার মডেল থানায় ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার বিরুলিয়া ইউনিয়নের শ্যামপুর আবাসিক এলাকায় নিজ বাড়ির বাথরুমে ধর্ষণের শিকার হয় ওই শিক্ষার্থী।

গ্রেপ্তার মনির আহম্মেদ (৫২) নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানার নরচনপুর গ্রামের মৃত নজির আহমেদের ছেলে। সে সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের শ্যামপুর আবাসিক এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন ধরেই ১২ বছরের ওই শিক্ষার্থীর দিকে লোলুপ দৃষ্টি দিয়ে আসছিল প্রতিবেশী বৃদ্ধ মনির আহম্মেদ। এরপর গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই শিক্ষার্থী তার নিজ বাসা সংলগ্ন বাথরুমে যায়। এসময় সুযোগ বুঝে প্রতিবেশী লম্পট মনির বাথরুমে প্রবেশ করে ওই শিক্ষার্থীর মুখ চেপে ধরে জোরপূবর্ক ধর্ষণ করে। পরে ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে। এসময় লম্পট মনিরকে আটক করে পুলিশে খবর দেয় প্রতিবেশী ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা।

 

এব্যাপারে বিরুলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অপূর্ব দত্ত জানান, ভুক্তভোগী ওই কিশোরীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়া ধর্ষণে অভিযুক্ত মনির আহম্মেদকে গ্রেপ্তারের পর বুধবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24 ধর্ষণ বৃদ্ধ গ্রেপ্তার