banglanewspaper

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাটে জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের অভিযানে ১ ভুয়া চিকিৎসক আটক করা হয়েছে। এ সময় কথিত ওই চিকিৎসকের বাড়ী থেকে প্রাপ্ত ১৫ লক্ষাধিক টাকার ঔষুধ জব্দ করে ধ্বংস ও ১ বছরের কারাদন্ডাদেশ প্রদান করে ভ্রাম্যমান আদালত। 

র‌্যাব-৫ রাজশাহীর অধিন জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাইমেনুর রশিদ পিপিএম জানান,  গোপন সংবাদের ভিত্তিরে উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের ভাতকুন্ডু গ্রামে মো. সাদেক আলী মন্ডলের ছেলে মো. রায়হান (৩২) দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আসছেন।

মাত্র এসএসসি সনদপ্রাপ্ত একজন ভূয়া চিকিৎসক লিখেন এন্টিবায়েটিক, জ্বিন ভুত ছাড়ানোর নামে আগত রোগীদের করেন লাঠি পেটা, লোহার তৈরী ত্রিশুল, মনামনিসহ বিভিন্ন নিষিদ্ধ ঔষুধ দিয়ে অবৈধভাবে ৮ বছর যাবত চিকিৎসার নামে প্রতারনা করে আসছিলেন, সর্বশেষ জিনের রোগীকে লাঠি পেটা করতে গিয়ে অসুস্থ্য হওয়ার খবর প্রকাশ  হলে এলাকায়কৌতুহলের সৃষ্টি হয়। এতসব অভিযোগ আমলে নিয়ে ১৮ মার্চ দুপুরে ভুয়া ওই চিকিৎসকের বাড়ীতে অভিযান চালায় র‌্যাব সদস্যরা।

এ সময় তার বাড়ী থেকে মাদক, নিষিদ্ধ ঔষুধ, তাবিজ, গর্ভপাত ঘটানোসহ  বিপুল পরিমান নিষিদ্ধঔষুধ জব্দ করে তা ধ্বংস করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট গনপতি রায়। এ সময় তাৎক্ষনিক মোবাইল কোর্টে ভুয়া ডাক্তার রায়হানকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

অভিযুক্ত ভুয়া চিকিৎসক রায়হান বলেন, "আমি স্বপ্নে চিকিৎসা শিখেছি, জিন, ভুত তাড়ানো, বাশলী রোগের চিকিৎসা করি"

 এসএসসি পাস করে প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়েটিক লিখা বৈধ কিনা প্রশ্ন করলে ভুয়া চিকিৎসক কোন জবাব দেন নি। 

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ধামইরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবু ইসা মো. আরাফাত ইমাম বলেন, এসব ঔষুধ খেলে লিভার সিরোসিস, ক্যান্সারসহ মানুষের বিভিন্ন দুরোরোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার সমুহ সম্ভাবনা রয়েছে, এবং বিশেষ করে পুরুষরা পুরুষত্বহীন হয়ে পড়ার আশংকা রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার গনপতি রায় বলেন, ধামইরহাটে কোন বাসা বাড়ীতে এতগুলো নিষিদ্ধ ঔষুধ দেখে আমি বিস্মিত হয়েছি, শুধু মাত্র এসএসসি পাস করে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষকে ঠকিয়ে আসছিল, চিকিৎসার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল এই ভুয়া চিকিৎসক, সরকার ও প্রশাসন সাধারণ জনগণের ক্ষতি কোন ভাবেই বরদাস্ত করবে না। 

এলাকাবাসী তার এই সাজা ও র‌্যাবের অভিযানকে সাধুবাদ জানান।

ট্যাগ: bdnewshour24 কারাদন্ডাদেশ র‌্যাব