banglanewspaper

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় আবাসিক হলগুলো খালি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেট৷

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভা থেকে আগামীকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে হলে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া করোনা–পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের ছুটি তিন দিন বাড়ানো হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রথম আলোকে সিন্ডিকেট সভার এসব সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আজ দুপুর ১২টার দিকে এই সভা বসে।

এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ১৬ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ১৮ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিল। সিন্ডিকেট সভায় এই ছুটি তিন দিন বাড়িয়ে ৩১ মার্চ করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হল প্রাধ্যক্ষদের বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া করোনার প্রাদুর্ভাবের এই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ কার্যালয়গুলোর (উপাচার্য, সহ-উপাচার্য কার্যালয়) কার্যক্রম সীমিত রাখা এবং অন্য সব কার্যালয় বন্ধ রাখতে বলেছে সিন্ডিকেট।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়লে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার তথ্য সমন্বয় করতে সিন্ডিকেট সভা থেকে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘করোনা রেসপন্স কমিটি’। এই কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিন শাহরিয়ার নবীকে। সদস্যসচিব করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা সারওয়ার জাহানকে।

১৬ মার্চ ছুটি ঘোষণার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো প্রায় ফাঁকা হয়ে গেছে। তবে যাঁরা ঢাকায় কোনো খণ্ডকালীন চাকরি বা টিউশনি করেন, তাঁরা এখনো হলে অবস্থান করছেন।

বাংলাদেশে মোট ১৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক ব্যক্তি।

ট্যাগ: bdnewshour24 ঢাবি করোনাভাইরাস