banglanewspaper

অভিনেত্রী পরীমনি ও ছোট পর্দার নির্মাতা কামরুজ্জামান রনির বিয়ে হয় ১০ মার্চ মধ্যরাতে। ফেসবুকের মাধ্যমে রনি সে খবর জানান ১৯ মার্চ। যদিও পরী এখনো নিজের সোশ্যাল সাইটে সেভাবে কিছু জানাননি।



সম্প্রতি দেয়া এক  সাক্ষাৎকারে এই করোনা আতঙ্কের মধ্যে বিয়ে করা প্রসঙ্গে পরী বলেন, এখনই খবরটি প্রকাশের কথা ছিল না। আমার সিনেমার শুটিং, রনির নাটকের কাজ শেষ করে সবাইকে জানাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু কিছু মেয়ে রনিকে ডিস্টার্ব করে। সেটা নিয়ে একটা ইস্যু তৈরি হয়েছে। এ কারণেই করোনার অশান্তির মধ্যেই খুশির খবরটি দিতে হয়েছে। যা হওয়ার তা তো হয়েই গেছে। আজ হোক কাল হোক, সবাই জানবেই।

মাত্র চার দিন কাছাকাছি থেকে কিভাবে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন পরী, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বললেন, বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি পাঁচ মিনিটে।  ৮ মার্চ শুটিং থেকে ঢাকায় ফিরি। তারপর মনে হচ্ছিল, কিছু একটা মিস করছি। আমি রনিকে হোয়াটসঅ্যাপে ‘আমার ভালো লাগছে না’ বলে এসএমএস করি। রনি আমাকে লিখল, আই লাভ ইউ, তুমি আমাকে বিয়ে করবা?



এমন কথা শুনে স্তব্দ পরী বললেন, এভাবে কোনো দিন ভালোবাসা কিংবা বিয়ের প্রস্তাব পাইনি কখনো। তার এই মেসেজ দেখে নিজের মধ্যে সবকিছু কেমন এলোমেলো হয়ে গেল। শান্তিনগরে রনি ও হৃদি আপার প্রোডাকশন হাউস ‘টিকেট’-এর অফিসে গেলাম পরদিন। আমি, রনিসহ কয়েকজন হৃদি আপার কাছে গিয়ে বললাম, আমরা বিয়ে করব। হৃদি আপা হেসে দিলেন। তিনি ভেবেছিলেন, আমরা ফাজলামি করছি। এরপর পাঁচ মিনিটের সিদ্ধান্তে বিয়ে। পরিবারের কেউ ছিল না। 

এদিকে তার বিয়ে নিয়ে ভক্ত ও পরিচিতদের প্রতিক্রিয়া নিয়ে পরী বললেন, ইতিবাচক-নেতিবাচক দুই ধরনের প্রতিক্রিয়াই থাকতে পারে। তাতে আমার কিছুই যায়–আসে না। আমি বিয়ে করেছি, এটি আমার ব্যাপার। বিয়ের খবরে কেউ অখুশি হবেন, কেউ খুশি হবেন। এর মধ্যেই আমি আমার বিয়ে, আমার জীবন নিয়ে খুশি থাকব।

ট্যাগ: bdnewshour24