banglanewspaper

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে জনপ্রিয় ইসলামী বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। ঘরেই আদায় করছেন সালাত।  অন্যদেরও ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

নিজের ভ্যারিফাইড এক ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘ পুরো দেশ খুব দ্রুততম সমেয়র মধ্যে লকডাউনে চলে যাওয়া উচিত। গভার্নমেন্টকে এখন হার্ড লাইনে যেতে হবে।  জনগন কথা শনবে না। এটাই স্বাভাবিক। তাই ল্য ইনফোর্সমেন্টের মাধ্যমেই পরিস্স্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। পুরো দেশ লকডাউনে চলে গেলে দিন আনে দিন খায় এরকম খেটে খাওয়া মানুষদের জীবিকার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। সে ক্ষেত্রে সমাজের বিত্তশালী লোকজন, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সরকারকে এক যোগে কাজ করতে হবে।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘এদেশের একটা অঘোষিত নিয়ম হল: মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিশেষ আদেশ না আসলে দেশের হর্তা কর্তারা নড়েচড়ে উঠেন না। এটা একটা বড় সমস্যা। করোনা মহামারিকে ডেঙ্গুর মত মনে করলে অথবা “আমরা করোনার চেয়ে অনেক শক্তিশালী” এরকম দায়িত্বজ্ঞাণহীন মন্তব্যের ফুলঝুড়ি চলতে থাকলে পুরো জাতির কপালে মহাদুর্গতি আছে।

আমরা প্রায় তিন মাসের মত একটা লম্বা সময় পেয়েছি। এ দীর্ঘ সময়ে অন্যান্য আক্রান্ত দেশগুলো থেকে যদি আমরা শিক্ষা না নেই এবং সংকট উত্তরণে তাদের অভিজ্ঞতা যদি কাজে না লাগাই তাহলে আল্লাহ নিজে এসে কিছু করে দিয়ে যাবেন না। এটাই আল্লাহর নিয়ম বা সুন্নাহ। বাঁচতে হলে আমাদেরকে সাবধানে থাকতে হবে। কুরআন বলছে: ‘আল্লাহ তায়ালা  ততক্ষণ কোন জাতির অবস্থার পরিবর্তন ঘটান না, যতক্ষণ না তারা নিজেরা তাদের অবস্থার পরিবর্তনের চেষ্টা করে”। (সূরা আল রা’দ, আয়াত: ১১)

‘আমি ব্যক্তিগতভাবে গত আটদিন যাবত স্বেচ্ছায় পুরোপুরি ভাবে বাসায় অবস্থান করছি। এর মধ্যে একবারের জন্যও বাইরে বের হইনি। সব সালাত ঘরে জামাতে আদায় করেছি। বর্তমান সময়ে এর চেয়ে ভালো কাজ আর হতে পারে না। তাই সবাইকে বলছি, প্লিজ প্লিজ সবাই ঘরে থাকুন। এটাই এখন সবচেয়ে বড় মহৌষধ।’

ট্যাগ: bdnewshour24