banglanewspaper

আবাহনীর নতুন অধিনায়ক এবারের প্রিমিয়ার লিগে সর্বাধিক ৬৫ লাখ টাকায় আকাশি হলুদ শিবিরে যোগ দিয়েছেন। লিগ আর মাঠে না গড়ালে মুশফিক যত টাকা অগ্রীমই নিয়ে থাকেন না কেন, পাবেন মোটে ৪ লাখ ৬ হাজার ২৫০ টাকা।

অর্থাৎ এবারের দলবদলের প্রধান শর্তই হলো প্লেয়ার্স বাই চয়েজ ভেঙে যত খোলামেলা দলবদলই হোক না কেন, আর ক্রিকেটাররা যত টাকা অগ্রীম নিয়েই চুক্তি করুন না কেন, পারিশ্রমিক বন্টন হবে ম্যাচ পিছু। যে যত টাকা পাবেন, সেই মোট পারিশ্রমিকের অংকটা যত ম্যাচ খেলবেন, তা দিয়ে ভাগ হবে। যেহেতু মুশফিক ৬৫ লাখ টাকায় আবাহনীর সাথে চুক্তি করেছেন, তাই লিগ আর না হলে একটি মাত্র খেলার টাকাই জুটবে তার কপালে।

প্রিমিয়ার লিগের আয়োজক ও ব্যবস্থাপক সিসিডিএমের সদস্য সচিব আলী হোসেন জানান, ‘লিগ শুরুর আগে আমরা জানতাম জাতীয় দল এপ্রিলের প্রথম ভাগে পাকিস্তান যাবে। তাই আমরা এবারের দল বদলে একটা নিয়ম করে দিয়েছি যে, যত টাকায়ই চুক্তি করুক না কেন, পারিশ্রমিক পাবেন ম্যাচ টু ম্যাচ। যেহেতু ১২ দলের লিগ, তাই আমরা প্রথম লিগে ১১ ও সুপার লিগের ৫-সহ সর্বোচ্চ ১৬ ম্যাচ ধরে রেখেছি। আর যাদের দল সুপার লিগ খেলতে পারবে না, তাদের পারিশ্রমিক ঐ ১১ খেলার হিসেবেই বণ্টন হবে। ’

তার মানে লিগ আর শুরু না হলে সবাই এক ম্যাচের অর্থই পাবেন। আর তাই ৬৫ লাখ টাকায় আবাহনীর সঙ্গে রফা করা মুশফিকের ভাগ্যে তখন জুটবে মাত্র ৪ লাখ টাকা।



আর মুশফিক, তামিম, রিয়াদ, মাশরাফি, লিটন, সৌম্যরা মোট পাওনার অন্তত ৫০ ভাগ অগ্রীম নিয়ে তবে দলবদল করেছেন। এখন লিগ আর না হলে সেই অগ্রীম অর্থের বড় অংক ক্লাবকে ফেরত দিয়ে দিতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24