banglanewspaper

বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করে বলেছে যে ইউরোপের পর যুক্তরাষ্ট্র এই ভাইরাসের কেন্দ্র হয়ে উঠতে পারে। তাদের সেই হুঁশিয়ারির দুই দিন না যেতেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বের সব দেশকে ছাড়িয়ে গিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ হাজার ৩৩৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ১৬৬ জন। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিহত হয়েছেন ১২৯৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নিহত হয়েছেন ২৬৮ জন।

গত জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর তা এখন নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে বসেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন আরও বেশি নমুনা পরীক্ষা ও বিশ্লেষণ করায় আক্রান্তের সংখ্যা নাটকীয়ভাবে বাড়ছে। দেশটির নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সবগুলো অঙ্গরাজ্যেই করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনায় সর্বপ্রথম তাণ্ডব চালিয়েছে চীনে। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজারের বেশি এবং ৩২৯২ জন নিহত হয়েছেন। চীনের পর মৃত্যুর সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইতালি। সেখানে এখন পর্যন্ত ৮০ হাজারের বেশি আক্রান্ত এবং ৮২১৫ জন নিহত হয়েছেন। এরপরই রয়েছে স্পেন। সেখানে প্রায় ৫৮ হাজার আক্রান্ত এবং ৪৩৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত বছরের শেষ দিন চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। সেখানে ভয়াবহ আকার ধারণ করার পর চীনের ভূখণ্ড পেরিয়ে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে। ২০০টির বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি।

ট্যাগ: bdnewshour24