banglanewspaper

করোনা ভাইরাসের ছোবলে বিশ্বের দেশে দেশে চলছে লডডাউন। বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ গৃহবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। সরকারি নিষেধাজ্ঞায় কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। বন্ধ হয়ে আছে সরকারি-বেসরকারি সব অফিস-আদালত। এর প্রভাব পড়েছে মোবাইল ফোন বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপরও। 

কাউন্টার পয়েন্ট রিসার্চ গেল বৃহস্পতিহবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গেল ফেব্রুয়ারি মাসে স্মার্টফোনের বিক্রি কমেছে ১৪ শতাংশ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে জানানো হয়েছে, বিশ্বের অনেক অঞ্চলে করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি দিনকে দিন নাজুক হওয়ায় স্মার্টফোনের বিক্রি আরও কমতে পারে।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে গেল মাসে চীনে অ্যাপলসহ অন্যান্য স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের বিক্রয় কেন্দ্র বন্ধ করে দিয়েছিল। চীনের সরকারি তথ্যানুসারে, ফেব্রুয়ারিতে চীনের মূল ভূখণ্ডে ৫ লাখের কম আইফোন বিক্রি করেছে অ্যাপল।



চীনে গেল এক বছর আগের চেয়ে গত ফেব্রুয়ারি মাসে স্মার্টফোনের বিক্রি কমেছে ৩৮ শতাংশ। 


তবে মার্চের মাঝামাঝি বেশ কিছু বিক্রয় কেন্দ্র আবারও চালু হওয়ায় দেশটিতে স্মার্টফোন বিক্রি ফের স্বাভাবিক হওয়ার ইঙ্গিত মিলছে।

কাউন্টার পয়েন্ট রিসার্চ-এর সিনিয়র বিশ্লেষক জিন পার্ক বলেছেন, ‘দক্ষিণ কোরিয়াতেও বিক্রি স্বাভাবিক হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে করোনা পরিস্থিতি ক্রমে খারাপের দিকেই যাচ্ছে।’

এছাড়াও অনেক দেশে লকডাউন ও আদমানি-রফতানি বন্ধ থাকায় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো সরবরাহ চেইনের জটিলতায় পড়েছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24