banglanewspaper

করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে গোটা ভারতে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। এরইমধ্যে ঘর থেকে রাস্তায় বের হয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক কিশোরী। 

রবিবার সারা দেশে লকডাউন ঘোষণার দুদিন পর গেল মঙ্গলবার ভারতের ঝাড়খণ্ডের দুমকা জেলায় এ ঘটনা ঘটে। 

ভারতের শীর্ষ সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়েছে, ওই কিশোরীর দুই বন্ধু তাকে বাইকে চড়িয়ে গ্রামের কাছে কারুদিহ মোড়ে নামিয়ে দিয়ে অন্য বন্ধুকে বলে তাকে বাড়ি পৌঁছে দিতে। ওই বন্ধুটি অপর এক অপরিচিত ব্যক্তিকে নিয়ে বাইকে করে সেখানে উপস্থিত হয়। বন্ধুটি তখন কিশোরীকে বলে, লকডাউনের কারণে সব জায়গায় তল্লাশি চলছে। তাই তাকে জঙ্গলের ভেতর দিয়ে শর্টকাট রাস্তায় নিয়ে যাবে। কিশোরীও তাতে কোনও আপত্তি করেনি।



জঙ্গলের ভেতর কিছুদূর প্রবেশ করতেই মেয়েটি বুঝতে পারে, তাদের জন্যই অপরিচিত আরও ৮ জন সেখানে অপেক্ষা করছে। এরপর ওই বন্ধু ও অপর অপরিচিত ৯ জন মিলেই কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে কিশোরী জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরদিন সকালে জ্ঞান ফিরে পেলে দেখে সে জঙ্গলের ভেতর পড়ে আছে। 

এরপর স্থানীয় কিছু লোকজন মেয়েটিকে হাসপাতালে নিয়ে যায় ও তার বাবা-মাকে খবর পাঠায়। বর্তমানে ওই কিশোরী হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন আছে।

এ ঘটনায় সেখানকার পুলিশ জানিয়েছে, তারা কিশোরীর বয়ান নিয়েছে। এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। শিগগিরই ধর্ষকদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24