banglanewspaper

‘বড় লোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল, এমন মাথায় বেঁধে দেব লাল গেঁন্দা ফুল’। গেঁন্দা ফুল শিরোনামের গানটি ২৫ মার্চ সনি মিউজিক ইন্ডিয়ার ইউটিউব সাইটে মুক্তি পাওয়া গানটি ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ে দেখা হয়েছে ২ কোটি ৭০ লাখ বারের বেশি।

অবশ্য পুরো গানটা মোটেই বাংলায় নয়, বাদশার র‌্যাপের সঙ্গে মিশে এক নতুন মাত্রা পেয়েছে। গানটি গেয়েছেন পায়েল দেব। বাংলার আঞ্চলিক গান ও হিন্দি মিলিয়ে তৈরি এই গানের ভিডিওর জ্যাকলিনের সঙ্গে দেখা গিয়েছে বাদশাকে।

তবে ক্ষণিকেই জনপ্রিয় হওয়া গানটি সমালোচিতও হচ্ছে বেশ। সমস্যা র‍্যাপার বাদশা ও পায়েল দেবের গান গাওয়া নিয়ে নয়, গানের মূল উৎসের কথা স্বীকার না করা নিয়ে। ইউটিউবে একটি ভালো করে খেয়াল করলেই দেখা যাবে গানের বিবরণীতে গানের কথায় বাদশার নাম লেখা। কোথাও বহু পুরনো এবং জনপ্রিয় বাংলা গানের উৎসের কথা স্বীকার করা হয়নি। আর তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন অনেকেই। 

অভিযোগ, এমন কালজয়ী গানের যিনি স্রষ্টা, সেই শিল্পী অনেকের অবহেলার মধ্যে বিস্মৃতই রয়ে গেলেন। আর তার গান নিয়ে যা খুশি তাই করে ব্যবসা করে চলেছে অনেকে। অথচ সেই রতন কাহার তার প্রকৃত সম্মান পেলেন না।

'বড়োলোকের বিটি লো' গানটির যিনি প্রকৃত স্রষ্টা সেই রাঢ় বাংলার শিল্পী রতন কাহারের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ কিছু না লিখলেও পরিচালকের শেয়ার করা এই ভিডিওটিই অনেক কথা বলে দেয়।

ট্যাগ: bdnewshour24