banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ বন্ধুর সাথে ঘুরতে গিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৬দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মারা গেলেন গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের নাঈম সরকার (২৪) নামের এক কলেজ ছাত্র ।

২৮ মার্চ শনিবার বিকেলে ময়মনসিংহের রেজিয়া ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।  

নিহত নাঈম সরকার উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের উত্তর পেলাইদ গ্রামের আব্দুল লতিফ সরকারের ছেলে। তিনি আব্দুল আউয়াল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের (ডিগ্রি) মানবিক শাখার ছাত্র ছিলেন।

নিহতের স্বজনরা জানায়, ১৬ দিন আগে বন্ধুর সাথে ঘুরতে গিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় 
মাথায়, হাত ও পায়ে আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন নাঈম। প্রথমে তাকে ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। ডাক্তারের পরামর্শে গত ২০ মার্চ তাকে ময়মনসিংহের রেজিয়া ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বিকেলে মারা যান তিনি। 

উল্লেখ, গত ১৩ মার্চ সকালে উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বিধায় এলাকার (জৈনা-কাওরাইদ আঞ্চলিক সড়কে) লাল পুকুর পাড়ে পিক-আপের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এ ঘটনায় রায়হান উদ্দিন (১৮) নামে তার এক বন্ধু ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। রায়হান ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার জামিরদিয়া গ্রামের শহীদ মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনার পর স্থানীয়দের বরাত দিয়ে শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এখলাছ উদ্দিন জানিয়েছিলেন, শুক্রবার সকালে দুই বন্ধু মিলে মোটরসাইকেল যোগে জৈনার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। জামিরদিয়া হতে সংযোগ সড়ক ধরে (লাল পুকুর পাড় মোড়ে) জৈনা-কাওরাইদ আঞ্চলিক সড়কে উঠা মাত্রই কাওরাইদগামী একটি পিক-আপের সাথে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে আহত হন রায়হান। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার চেষ্টা করলে পথিমধ্যে মারা যান তিনি । এ ঘটনায় আহত হয়েছিলেন তার বন্ধু নাঈম।পুলিশ ঘটনাস্থল হতে পিক-আপটি থানা হেফাজতে নিয়ে যায়।

ট্যাগ: bdnewshour24