banglanewspaper

করোনা ভাইরাসে ভয়াবহ বিপর্যয়ে পড়েছে স্পেন। দেশটির হাসপাতালে জায়গা নেই। করোনায় মারা যাওয়াদের সৎকারে জায়গারও সংকট দেখা দিয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেখানে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৪৬৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৭৪৮ জন। 

স্পেনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৫ হাজার ৯২৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৯৬৭ জন। সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ হাজার ২৫৯ জন।

এছাড়া বর্তমানে স্পেনে ৬৮ হাজার ২০০ জন আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬২ হাজার ৫৯৩ জনের অবস্থা সাধারণ। বাকি ৫ হাজার ৬০৭ জনের অবস্থা গুরুতর, যাদের অধিকাংশই আইসিউতে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৩৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা এ যাবৎ একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪২ হাজার ১৫১। 

এই ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭২ হাজার ৭৪৯ জন। এটিও একদিনে আক্রান্তের সংখ্যায় সর্বোচ্চ। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ লাখ ৫৮ হাজার ৬৬৯ জন। এর মধ্যে ১ লাখ ৭৮ হাজার ৯৯ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন। 

এছাড়া বিশ্বজুড়ে বর্তমানে ৬ লাখ ৩৮ হাজার ৪১৯ জন আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬ লাখ ৫ হাজার ৫২১ জনের অবস্থা সাধারণ। ৩২ হাজার ৮৯৮ জনের অবস্থা গুরুতর, যাদের অধিকাংশই আইসিউতে রয়েছেন।

করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত ইতালি। ইতালিতে মৃতের সংখ্যা দিন দিন বাড়েছে। এখন পর্যন্ত সেখানে মারা গেছেন ১২ হাজার ৪২৮ জন। স্পেনে মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ৪৬৪ জন। যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৮৬৭ জনের। চীনে ৩ হাজার ৩০৫ জন। ফ্রান্সে ৩ হাজার ৫২৩ জন। ইরানে ২ হাজার ৮৯৮ জন। যুক্তরাজ্যে মৃত্যুর সংখ্যা ১ হাজার ৭৮৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ রোগের কোনো উপসর্গ যেমন জ্বর, গলা ব্যথা, শুকনো কাশি, শ্বাসকষ্ট, শ্বাসকষ্টের সঙ্গে কাশি দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। জনবহুল স্থানে চলাফেরার সময় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। বাড়িঘর পরিষ্কার রাখতে হবে। বাইরে থেকে ঘরে ফিরে এবং খাবার আগে সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে হবে। খাবার ভালোভাবে সিদ্ধ করে খেতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24