banglanewspaper

কোভিড-নাইনটিন প্রতিরোধে আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত তৈরি পোশাক কারখানা বন্ধ রাখতে সদস্যদের প্রতি অনুরোধ করেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ। তার আগে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখার অনুরোধ করেছিল সংগঠনটি।

শনিবার (৪ এপ্রিল) রাত পৌনে দশটার দিকে বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক সাংবাদিকদের মাধ্যমে সদস্য কারখানা মালিকদের বলেন, ‘‌‌'সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে সব কারখানার মালিক ভাই ও বোনদের বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।’

এদিকে বিকেএমইএর প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম সদস্য কারখানা মালিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, খুব জরুরি না হলে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে পারেন। তিনি বলেন, ‘আমরা শ্রমিকদের নিজ নিজ অবস্থানে থাকতে অনুরোধ করেছিলাম। তারা কেন বাড়ি চলে গিয়েছিল আমাদের বোধগম্য নয়।’

এর আগে গত ১ এপ্রিল দেশের বাণিজ্য পরিস্থিতি নিয়ে অনুষ্ঠিত সভা শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, পোশাক কারখানা চলতে বাধা নেই। তবে স্বাস্থ্য বিধি মানতে হবে। সভায় ৫ এপ্রিল কারখানা খোলার বিষয়েও গুরুত্ব দেওয়া হয়।



কারখানা খোলা রাখার বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়ে বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শনিবার বলেছে, বিশেষ অবস্থায় কারখানা খোলা রাখা এবং যাতায়াত ব্যবস্থা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার উদ্যোগ না নিয়ে সরকার এবং মালিকপক্ষ এক অমানবিক পরিস্থিতি তৈরি করেছে। এটি কোনোভাবেই দায়িত্বশীলতার পরিচায়ক নয়।

অন্যদিকে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার শনিবার এক বিবৃতিতে পোশাক কারখানা খোলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, পোশাক কারখানা এভাবে খুলে দেওয়ার ফলে ব্যাপক সংক্রমণ ঘটার যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে তার সম্পূর্ণ দায় দায়িত্ব শিল্পমালিক ও সরকারকে নিতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24