banglanewspaper

দেশে ক্রমেই বাড়ছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এসময় সাধারণ মানুষকে ঘরের থাকার আহ্বান জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আপনারা কি ইতালি বা স্পেনের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখতে চান? যদি না দেখতে চান তাহলে আমাদের দেয়া দিক-নির্দেশনাগুলো মেনে চলুন। আপনারা ঘরে থাকুন।

রবিবার (৬ এপ্রিল) প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে জরুরি বৈঠক শেষে সাংবাদিকের মাধ্যমে দেশবাসীকে এই আহ্বান জানান মন্ত্রী।

এর আগে মন্ত্রী করোনা ভাইরাসে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের জন্য করণীয় বিষয়ে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় যোগ দেন।

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ রাস্তায় বের হলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। 

তিনি বলেন, হোম কোয়ারেন্টিন না মানলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। যারা বিদেশ থেকে আসছেন এবং কোয়ারেন্টিন মানছেন না; আপনারা কি ইতালি বা স্পেনের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখতে চান? যদি না দেখতে চান তাহলে আমাদের দেয়া দিক-নির্দেশনাগুলো মেনে চলুন। আপনারা বাসায় থাকুন। দেশের প্রতি মমতা থাকলে আপনারা ঘর থেকে বের হবেন না, আইসোলেশন থেকে বের হবেন না।



গত তিনমাসের নোভেল কোরোনা (কোভিড-নাইনটিন) নামক এই ভাইরাসে সারা পৃথিবীতে মৃত্যু হয়েছে ৬৪ হাজার ৭৭২ জনের। আর এই সময়ের মধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১২ লাখ ৩ হাজার ১৮৮ জন। আর এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৬০ জন।

সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন ৪৪ হাজার ৯৬ জন। আর করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৮ লাখ ৯১ হাজার ৬৮১ জন।

প্রবাসীদের সিদ্ধান্তের বিষয়ে সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীদের যাচাই-বাছাই করে বাংলাদেশে ফেরত আনা হবে। তবে তাদের মধ্যে কেউ যদি গুরুতর অপরাধে জড়িত থাকে তাহলে তাদের ব্যাপারে অন্য কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে। দেশে ফেরত আনা প্রবাসীকে বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

সভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন এমপি  বলেন, প্রবাসীরা দেশের সম্পদ। এই দুঃসময়ে তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের মানবিক দায়িত্ব। বিভিন্ন দেশের অনুরোধের প্রেক্ষিতে কিছু প্রবাসী বাংলাদেশীকে ফেরত আনা হচ্ছে। এর ফলে সেসব দেশের সাথে বাংলাদেশের শ্রম কূটনৈতিক সম্পর্ক সুসংহত হবে এবং কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ প্রাধান্য পাবে।

ট্যাগ: bdnewshour24