banglanewspaper

করোনায় ভাইরাসে আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের অবস্থার বেশ উন্নতি হয়েছে। সেজন্য তাকে হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) থেকে বের করা হয়েছে। তবে তিনি এখনো হাসপাতালের ওয়ার্ডে চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে আছেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট থেকে জানানো হয়েছে, ‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে আইসিইউ থেকে বের করে ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তিনি সেখানে থেকে সুস্থ হয়ে উঠার প্রাথমিক পর্যায়ের চিকিৎসা নেবেন। তার মনোবল ভীষণ ভালো।’

গত রবিবার থেকে লন্ডনের সেন্ট টমাস হাসপাতালে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসা নিচ্ছেন জনসন। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরদিনই তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। তাকে সেখানে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হলেও তার ভেন্টিলেটর লাগেনি বলে জানা যায়। আইসিইউতে মোট ৩ রাত কাটানোর পর বৃহস্পতিবার তাকে সেখান থেকে বের করে আনা হয়।

১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটের মুখপাত্র জানিয়েছেন, জনসনের শারীরিক অবস্থা উন্নতি হচ্ছে এবং তিনি ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক বলেন, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে আইসিইউ থেকে বের করে আনা খুব ভালো খবর এবং তিনি উন্নতির দিকে রয়েছেন।

জনসনকে আইসিইউ থেকে বের করে আনার বিষয়টিকে `ভালো খবর' হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন ব্রিটেনের বিরোধী দল লেবার পার্টির নবনির্বাচিত নেতা।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী জনসনের দেহে করোনা শনাক্ত হবার পর থেকে তিনি রোববার বিকেল পর্যন্ত ডাউনিং স্ট্রিটে আইসোলেশনে ছিলেন। এসময় তিনি ঘরে বসেই যাবতীয় দায়িত্ব সামলেছেন। কিন্তু করোনা না কমে বরং তিনি আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য রোববার সন্ধ্যায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরীক্ষা শেষে তার ঘরে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24