banglanewspaper

মোঃ আব্দুল হাকিম , নাটোর প্রতিনিধি:
নাটোরের প্রশাসন করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায়  সার্বিকভাবে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে । শনিবার  নাটোর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এই প্রথম ভিডিওি কনফারেন্সের মাধ্যমে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ শাহরিয়াজ এসব কথা জানান। উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা , সিভিল সার্জন ডাঃ কাজী মিজানুর রহমান ।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ শাহরিয়াজ বলেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় কর্মহীন, দরিদ্র, দিন মজুর ও দরিদ্র ব্যক্তিদের জন্য মোট বরাদ্দ পাওয়া গেছে ৭৫৫ মেঃটন চাল এবং ৩৬ লাখ ১৫ হাজার টাকা। এরমধ্যে ৩৩ হাজার ৩৫৪ জন ব্যক্তির মধ্যে  ৪৩৭ মেঃটন চাল ও ১৯ লাখ ১৭ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে।অবশিষ্ঠ চাল ও টাকা দ্বিতীয় দফায় বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে ।

তিনি বলেন, জনগণকে সচেতন করতে এবং সামাজিক দুরত্ব অভিযান সফল করতে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২৫টি ভ্রাম্যমান আদালত কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এসব মোবাইল টিম সামাজিক দুরত্ব বজায় লাখার নির্দেশ না মানায় বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা সহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছে। তিনি জনসাধারণকে ঘরে থাকার আহবান জানান। 
 নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, বহিরাগত ব্যক্তিদের জেলায় প্রবেশ বন্ধে ইতমধ্যে জেলার সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সামাজিক বিচ্চিন্নতা অভিযান সফল করতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। জেলার থানা পুলিশ , ডিবি , ট্রাফিক সহ রিজার্ভ পুলিশের সকল সদস্য  জেলা ব্যাপী অভিযান পরিচালনা করছেন। সন্ধা ৬ টার পর জনসাধারণকে ঘরে রাখতে পুলিশ আরো কঠোর অভিযান পরিচালনা করবে।

নাটোরের সিভিল সার্জন ডাঃ কাজী মিজানুর রহমান বলেন, নাটোরে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত কাউকে পাওয়া যায়নি। ২৬টি নমুনার মধ্যে ২১টির ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। বাকী ৫টির ফলাফল বিকাল নাগাদ পাওয়া যাবে। তিনি বলেন, করোনা আইসলেশান ইউনিটগুলো শয্যা সহ অন্যান্য সুবিধা দিয়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। আমরা করোনা রোগীদের জন্য ৪০ টি ভেন্টিলেটর বরাদ্দ চেয়েছি। আশা করছি দ্রুতই সেগুলো পাওয়া যাবে। 

ট্যাগ: bdnewshour24