banglanewspaper

টাইমস হায়ার এডুকেশন ইমপ্যাক্ট র‌্যাংকিং-২০২০ এ দ্বিতীয় সংস্করণে বাংলাদেশের মোট ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান অর্জন করেছে। গুণগত শিক্ষায় (এসডিজি-৪) সারা বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে (৪০০-৬০১) স্থান অর্জন করেছে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

বুধবার (২২ এপ্রিল) টাইমস হায়ার এডুকেশন ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ইমপ্যাক্ট র‌্যাংকিং-২০২০ এ র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয় সংস্করণে ৮৯টি দেশের ৮৫০টি বিশ্ববিদ্যালয় অন্তর্ভুক্ত ছিল। 

একটি নবীন বিশ্ববিদ্যালয় (২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত) হিসেবে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের এ এক অনন্য অর্জন। ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের একমাত্র বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে একইসাথে বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক গ্রহণযোগ্য ও স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিংয়ে টাইমস হায়ার এডুকেশন এর বিচারে মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান লাভ করার গৌরব অর্জন করছে।

বাংলাদেশের মোট যে ৫টি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় স্থান করে নিয়েছে- ব্র্যাক ইইউনিভার্সিটি ও ড্যাফোডিল ইইন্টারন্যাশনাল ইইউনিভার্সিটি ৩০১ ও ৪০০ এর মধ্যে অবস্থান অর্জন করেছে।

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ৪০১ থেকে ৬০০ এর মধ্যে স্থান পেয়েছে।

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ ৬০১ প্লাসের উপরে অবস্থান পেয়েছে।

জাতিসঙ্ঘ নির্ধারিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সারা পৃথিবীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভূমিকার ভিত্তিতে টাইম হায়ার এডুকেশন এই র‌্যাংকিং তৈরি করে থাকে।

এদিকে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিংয়ে অংশ নেয়নি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আখতারুজ্জামান বলেন, আমরা এই র‌্যাংকিংয়ে অংশ নিইনি। সেই কারণেই ঢাবির তালিকাতে নেই। র‌্যাংকিং কর্তৃপক্ষ তাদের এসডিজি প্রভাব প্রতিযোগিতায় জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিল।

টাইমস হায়ার এডুকেশন হচ্ছে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিশ্বব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের মূল্যায়নকারী কর্তৃপক্ষ ও উচ্চশিক্ষার তথ্য প্রদানকারী শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান। 'টাইমস হায়ার এডুকেশন ইউনিভার্সিটি ইম্প্যাক্ট র‌্যাংকিং ২০২০' হচ্ছে জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বিশ্বব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয় সমুহের গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবদানের উপর ভিত্তি করে বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের র‌্যাংকিংয়ের প্রথম পদক্ষেপ। আর এ র‌্যাংকিংয়ে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান শুধু ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের জন্যে গৌরবোজ্জ্বল নয়, বাংলাদেশের জন্যও গৌরবের বিষয়।

এ অবস্থান শুধু ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের বৈশ্বিক প্রবর্তক হিসেবে শিক্ষা, গবেষণা ও জ্ঞান বিস্তারে জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের প্রতিশ্রুতি পূরণের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ কর্মকাণ্ড পরিচালনার নিয়মিত চর্চা, কর্মপন্থা ও কার্যপ্রণালীর যথার্থতা প্রমাণের মূর্ত প্রকাশও।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা, সাইটেশন, আন্তর্জাতিক রূপ এবং ইন্ডাস্ট্রি ইনকামের ওপর ভিত্তি করে র‌্যাঙ্কিংটি করা হয়। এই পাঁচটি ধাপে কর্তৃপক্ষ ১৩টি সূচকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে মাপে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ