banglanewspaper

করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট পরিস্থিতির কারণে উচ্চশিক্ষা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে অনলাইনে পরীক্ষা এবং ভর্তির সুযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) বিকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের এক অনলাইন সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, অনলাইনের দিকেই এখন মনোযোগের দিতে হবে। ভারতসহ বিভিন্ন দেশেই এই করোনার সমস্যাই শিক্ষা ব্যবস্থা কি ধরনের উদ্যোগ নেয়া যায় সেগুলো ভাবা হচ্ছে। তবে দেশে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনলাইনের সুযোগ-সুবিধা কম। কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর সুযোগ রয়েছে। তাই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যাতে অনলাইনেই পরীক্ষা এবং ভর্তি কার্যক্রম চালাতে পারে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

অনলাইন সভয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহসহ বেশ কয়েকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, দেশের পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরাও সভায় ছিলেন। আমরা চেষ্টা করেছি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যাতে ক্ষতির মুখে না পড়ে। করোনাভাইরাস চলাকালে অন্তত একটি সেমিস্টারের শিক্ষা কার্যক্রম যাতে ঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারে সেজন্য তারা পরীক্ষা কীভাবে নেবে, সে বিষয়ে করণীয় ঠিক করে দেয়া হবে। পাশাপাশি আগামী সেমিস্টারের ভর্তি কত তারিখ থেকে কত তারিখ পর্যন্ত চলবে সে বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ গাইডলাইন আগামী সপ্তাহে দেয়া হবে।

ইউজিসি সভা সূত্রে আরও জানা গেছে, অনলাইনে ক্লাস, সেমিস্টার ফাইনাল ও অন্যান্য পরীক্ষা এবং ভর্তি কার্যক্রম চালানোর সুযোগ থাকলেও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফি আদায়ের ক্ষেত্রে অভিভাবকদের কোনো ধরনের চাপ দিতে পারবে না বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এছাড়া এই সময়ে কোনো শিক্ষক-কর্মকর্তার চাকরিচ্যুত করা যাবে না এবং বেতনভাতা প্রদানের ব্যাপারে উদ্যোগী হতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ইউজিসি