banglanewspaper

দিনে দিনে আরও ভয়ংকর হয়ে উঠছে মারণ ভাইরাস করোনা। জামা, জুতো থেকে শুরু করে খবরের কাগজ, টেবল-চেয়ার, দরজা-আলমারির হাতল -- এসব রকমারি জিনিস থেকে কী করোনাভাইরাস সংক্রমণের সম্ভাবনা কতটা? আর আপনার ফ্রিজ? 

আপনার ফ্রিজের অন্দরে করোনাভাইরাস জ্যান্ত অবস্থায় কতক্ষণ লুকিয়ে থাকতে পারে জানেন? চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি WHO (World Health Organization)-এর তরফে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। সেখানে পরিষ্কার ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, -২০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে অন্যান্য করোনা ভাইরাসগুলি কমপক্ষে দুই বছরের জন্য বেঁচে থাকতে পারে।

অন্য আরও বেশ কিছু সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, সার্স এবং মার্স এর মতো ভাইরাসগুলি তাপমাত্রা, আর্দ্রতা এবং আলো ইত্যাদির ভিত্তিতে নানা তলে বেশ কিছু দিনের জন্য বসবাস করতে পারে।

রিপোর্টগুলিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে, ফ্রিজের তাপমাত্রা অর্থাৎ ৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে মার্স-কোভ কমপক্ষে ৭২ ঘণ্টা অর্থাৎ তিন দিনের জন্য সক্রিয় অবস্থায় থাকতে পারে।

বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন যে, কম আর্দ্রতর এবং ৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইটের (৪.৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড) কম তাপমাত্রায় করোনাভাইরাস আরও সতেজ হয়ে ওঠে। ঠিক যে তাপমাত্রা থাকে ফ্রিজের ভিতরে।

তাই, দোকান বা বাজার থেকে কিছু কিনে আনলে তা আগে খুবই ভালো করে জীবাণুমুক্ত করা উচিত। ডক্টর গ্রিনের কথায়, আসল বিষয়টা হচ্ছে কখনও বাজার বা দোকান থেকে কিনে আনা যে কোনও বস্তু ফ্রিজে ভরতে হলে আগে সেটাকে খুব ভালো করে জীবাণুমুক্ত করা উচিত। 

ট্যাগ: bdnewshour24