banglanewspaper

নানা সময়ে নানা কারণে নানান দেশের পরিচিত ক্রিকেটারদের জেলের ভাত খেতে হয়েছে। এই তালিকায় যেমন রয়েছে বাংলাদেশের বেশ কিছু ক্রিকেটার, তেমনি রয়েছে ভারত, পাকিস্তান কিংবা ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার।

দেখে নিন, যেসব নামী ক্রিকেটার জেল খেটেছেন নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ার চলাকালীন সময়েঃ

শাহাদাত হোসেন (বাংলাদেশ)

গৃহপরিচারিকাকে শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বাংলাদেশের পেসার শাহদাত হোসেন।

মাখায়া এনটিনি (দক্ষিণ আফ্রিকা)

দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার তিনি। ১৯৯৮ সালে তিনি গ্রেপ্তার হয়েছিলেন গুরুতর এক অপরাধের অভিযোগ। ইস্ট লন্ডনের এক তরুণী তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিল ধর্ষণের। অবশ্য সেই অভিযোগটি প্রমাণ না হলেও অল্প কিছুদিন জেলে তাকে কাটাতেই হয়েছিল।

অমিত মিশ্র (ভারত)

যৌন হয়রানির অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া আরেক ভারতীয় ক্রিকেটার অমিত মিশ্র।

নভজোৎ সিং সিধু (ভারত)

১৯৮৮ সালে গুরুমান সিং নামের এক বৃদ্ধ ব্যক্তির সঙ্গে ঝগড়া লাগে নভজোৎ সিং সিধুর। তা থেকে মারামারি। সেই ঘটনায় আঘাত পেয়ে পরে হাসপাতালে মারা যান সেই গুরুমান, গ্রেপ্তার করা হয় সিঁধুকে। অনিচ্ছাকৃত হত্যাকাণ্ডের জন্য তার ১০ বছরের জেল হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কোনভাবে বেঁচে যান ভারতের এই সাবেক ওপেনার।

ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিস, আকিব জাভেদ ও মুশতাক আহমেদ (পাকিস্তান)

১৯৯৩ সালে পাকিস্তান দলের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের সময়কার ঘটনা। হঠাৎ করেই বিশ্ব মিডিয়ায় খবর গ্রেফতার হয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। সেই সঙ্গে গ্রেপ্তার হয়েছেন ওয়াকার ইউনিস, আকিব জাভেদ ও মুশতাক আহমেদ। গ্রেনাডার পুলিশের অভিযোগ ছিল তাদের কাছে অবৈধ মারিজুয়ানা রয়েছে। পরদিনই তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড)

গত বিশ্বকাপের আগেই ব্রিস্টলের একটি পানশালার বাইরে মারামারি করে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন ইংল্যান্ডের তারকা বেন স্টোকস। তার বিশ্বকাপ খেলাই অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গিয়েছিল।

রুবেল হোসেন (বাংলাদেশ)

২০১৫ বিশ্বকাপের আগে প্রেমিকার অভিযোগে আটক হয়েছিলেন বাংলাদেশের পেসার রুবেল হোসেন। পরে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সেই অভিযোগ তুলে নিয়েছিলেন তাঁর প্রেমিকা।

আরাফাত সানি (বাংলাদেশ)

একই ধরনের ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বাংলাদেশের আরেক বাঁ হাতি স্পিনার আরাফাত সানি।

স্পট ফিক্সিং- আসিফ, আমির, সালমান, শ্রীশান্ত

পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আসিফ, মোহাম্মদ আমির ও ব্যাটসম্যান সালমান বাট কারাভোগ করেছেন স্পট ফিক্সিং কান্ডে। একই অভিযোগে জেল খেটেছেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী পেসার শ্রীশান্ত।

ট্যাগ: bdnewshour24