banglanewspaper

হাইকোর্ট রুলসের মধ্যে ভার্চুয়াল আদালত অন্তর্ভুক্ত করতে হাইকোর্ট রুলস সংশোধনে একটি কমিটি গঠন করেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ফারাহ মাহবুবকে সভাপতি করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, বিচারপতি জে বি এম হাসান, বিচারপতি সহিদুল করিম ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত সপ্তাহে গঠন করা এ কমিটি ইতোমধ্যে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুটি বৈঠক করেছেন। বৈঠকে ভার্চুয়াল কোর্টের নতুন এ কনসেপ্টকে বিচারকাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবার মধ্যে পরিচিত করানোর বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে উচ্চ আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় মানুষ দীর্ঘ দিন ধরে মৌলিক অধিকার রক্ষায় আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। তাই ভার্চুয়াল কোর্ট সিস্টেম পরিচালনার মাধ্যমে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়িয়ে সহজে বিচার পাওয়ার পথকে কীভাবে সুগম করা যায় সে বিষয়ে বৈঠকে গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

ভার্চুয়াল কোর্ট সিস্টেম নিয়ে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারির পরেই হাইকোর্ট রুলসে তা অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

শনিবার (৯ মে) এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘হাইকোর্ট রুলস সংশোধন করতে প্রধান বিচারপতি ৫ সদস্যর কমিটি করে দিয়েছেন। এ কমিটি ইতোমধ্যে দুটি বৈঠক করেছেন। ভার্চুয়াল কোর্ট সিস্টেম হাইকোর্ট রুলসে অন্তর্ভুক্ত করতে এ কমিটি কাজ করে যাচ্ছেন।’

গত বুধবার (৬ মে) ভিডিও কনফারেন্সসহ অন্যান্য ডিজিটাল মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম চালানোর সুযোগ তৈরি করতে আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০-এর খসড়া নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। চলতি সপ্তাহে রাষ্ট্রপতি এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশ জারি করতে পারেন বলে জানা গেছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24