banglanewspaper

কোনও ভবন কিংবা বাসাবাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সতর্ক করেছেন স্থানীয় সরকার, সমবায় ও পল্লী উন্নয়নমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

সোমবার (১৮ মে) ডেঙ্গু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষা দিতে চলমান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান (চরুনি অভিযান) পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন। এসময় রাজধানীর বাড়িধারায় চলা চিরুনি অভিযানে মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা জানি, এডিস মশা আবাসিক, অনাবাসিক ভবনে বংশবিস্তার করে। বিশেষ করে নির্মাণাধীন ভবন আমাদের জন্য হুমকিস্বরূপ। এজন্য আমরা সর্বসাধারণের কারছে বিভিন্নভাবে বিষয়টি অবহিত করেছি।’ 

তিনি বলেন, ‘কোনও ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। এটা খুব দুঃখজনক যে, বারবার সতর্ক করার সত্ত্বেও নির্মাণাধীন বাড়ির মালিকরা সচেতন হচ্ছে না। তারা মানুষের জীবনকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। এজন্য আমি কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দিচ্ছি।’

চিরুনি অভিযান চলাকালে বারিধারার ৯ নম্বর পার্ক রোডের একটি নির্মাণাধীন ভবনে বিপুল এডিস মশার লার্ভার খোঁজ পান তারা। 

অভিযানকালে মেয়র আতিকুল বলেন, ‘এডিস মশার লার্ভা পাওয়ার কারণে আমরা এরইমধ্যে অনেক ভবন মালিককে আর্থিক জরিমানা করেছি। এখন সময় এসেছে তাদেরকে সামাজিকভাবে হেয়-প্রতিপন্ন করার।’

এসময় তিনি ঢাকাবাসীকে প্রতি তিনদিন পরপর জমে থাকা পানি অপসারণ ও এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করার আহ্বান জানান।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘যারা ভবন নির্মাণ করছেন তারা অনেক টাকার মালিক। কিন্তু তাদের অবহেলার জন্য মানুষ ঝুঁকিতে পড়ছে। এটা হতে পারে না।’

ট্যাগ: bdnewshour24