banglanewspaper

চলতি শতবে প্রাক-মনসুন পর্বে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া অতি প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আম্ফানকে প্রথম ‘সুপার সাইক্লোন’ বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ভারতের বেসরকারি আবহাওয়া পূর্বাভাস সংস্থা স্কাইমেটের প্রধান পালাওয়াট। 

তিনি বলেন, ‘ এর আগে ২০০৭ সালের জুন মাসে আরব সাগরে সুপার সাইক্লোন ‘গোনু’ তৈরি হয়েছিল। যেটা পরে ওমানের দিকে সরে যায়। আম্ফান এরইমধ্যে বাতাসে ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটারের বেশি গতিবেগ সঙ্গে ‘প্যাক’ করে নিয়েছে। মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এটি একটি ঘূর্ণিঝড় থেকে ‘অতি প্রবল’ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে গেছে, সেটাও কিন্তু একটা রেকর্ড।’

তীব্রতার মাপকাঠিতে আম্ফান এরইমধ্যে অনেক রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারতের আবহাওয়াবিদরা। 

তারা জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড়টি বুধবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা নাগাদ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত দীঘা থেকে শুরু করে বাংলাদেশির হাতিয়া দ্বীপের মধ্যবর্তী সমুদ্রতটের কোনও একটি জায়গা দিয়ে উপকূলে আছড়ে পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে সোমবার বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, বিধ্বংসী রূপ ধারণ করে অতি প্রবল শক্তিশালী এই আম্ফান মঙ্গলবার মধ্যরাতের পর থেকে অথবা বুধবার ভোরের দিকে বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদেরা। সোমবার দুপুরের পর থেকেই দেশের ১৪টি জেলা ও সকল সমুদ্রবন্দরগুলোকে হুঁশিয়ারি সংকেত সরিয়ে ৭ নম্বর বিপদসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। 

এদিকে দেশজুড়ে কারোনা ভাইরাস মহামারিতে দেশের অর্থনীতি-অগ্রগতি মুখ থুবড়ে পড়েছে। তার উপর হঠাৎ এই ভয়াবহ সুপার সাইক্লোন কতটা ক্ষয়ক্ষতি করতে পারে- করোনা আতঙ্কের মধ্যেই এমন প্রশ্ন উঁকি দিতে শুরু করেছে জনমনে। 

আবহাওয়া অধিদফতরের কর্মকর্তারা বলছেন, আম্ফান বাংলাদেশে বড় ধরনের বিধ্বংস চালাবে। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা। ডাঙায় আছড়ে পড়ার সময় অতি দানবীয় এই সাইক্লোনটির ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ১৬৫ কিলোমিটার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

ট্যাগ: bdnewshour24