banglanewspaper

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুটিং এর জন্য আসতে চলেছে নতুন নির্দেশিকা, এমনটাই আভাস দিয়েছেন ভারতের সিনটার চেয়ারপার্সন অমিত বেহেল।

করোনা’র সংক্রমণের কথা মাথায় রেখেই বিভিন্ন দেশে শ্যুটিং বন্ধ হয়ে গিয়েছে। খা খা করছে স্টুডিও পাড়া। কিন্তু এই পরিস্থিতি দীর্ঘদিন চলতে থাকলে টেলিভিশন বা সিনেমা শিল্পের সঙ্গে জড়িত মানুষগুলির ভবিষ্যত ভয়ানক হয়ে উঠবে। তাই এই পরিস্থিতির মধ্যেও কীভাবে নতুন পদ্ধতিতে শ্যুটিং করা যায় সেই চিন্তা ভাবনা ও মতামত জানানোর জন্যই কিছুদিন আগেই বিশ্বের ২০টি দেশ একটি বিশেষ বৈঠক করে।

সেই বৈঠকেই আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্সের মত দেশের সঙ্গে ভারতও যোগ দেয়। ওই বৈঠকে ভারত থেকে প্রতিনিধিত্ব করেন সিনটার চেয়ারপার্সন ও আউটরিচ কমিটির সদস্য অমিত বেহেল।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সিনেমা শিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে যা আলোচনা হয়েছে তার কিছুটা আভাস দিয়েছেন অমিত বেহেল। মূলত, লকডাউন উঠে যাওয়ার পর শ্যুটিং এর অনুমতি পেলেই, অর্ধেক সংখ্যক টেকনিশিয়ান নিয়ে কাজ করতে হবে পরিচালকদের। 

প্রয়োজনে পিপিই কিট ব্যবহার করে সিনেমা বা সিরিয়ালের শ্যুটিং করতে পারেন নির্মাতারা। অমিত আরও আভাস দিয়েছেন, শুটিং শুরুর আগে একসঙ্গে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। যদি দ্বিতীয়বার এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়, তার জন্য প্রত্যেককেই অবশ্যই প্রস্তুত থাকতে হবে।

ভিডিও কনফারেন্সে হওয়া ওই বৈঠকে সিনেমা বা সিরিয়ালের ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুটিং এর বিষয়টি নিয়ে অমিত জানিয়েছেন, “সেটে একজন করে ভাইরলজিস্ট রাখতে হবে। প্রয়োজনে আগামী বেশ কিছুদিন সিনেমা বা সিরিয়ালে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুটিং করা যাবে না। এছাড়াও সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কিত যে সমস্ত নির্দেশিকা সরকার বা বিভিন্ন রাজ্যের পৌর কর্পোরেশনগুলি স্থির করেছে, শুটিংয়ের সময় সেগুলি প্রয়োগ করা হবে।”

ট্যাগ: bdnewshour24