banglanewspaper

পাকিস্তানের করাচি শহরে ভয়াবহ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় এ পর্যন্ত অন্তত ১১ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে দুজনকে। নিহতদের মধ্যে দেশটির শীর্ষ মডেল জারা আবিদ রয়েছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে শুক্রবার (২২ মে) বিকেলে করাচি শহরের একটি আবাসিক এলাকায় ৯০ জন যাত্রী ও ৮ জন ক্রু নিয়ে বিধ্বস্ত হয় পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান। এ-৩২০ এয়ারবাস মডেলের বিমানটি লাহোর বিমানবন্দর থেকে করাচি যাচ্ছিল। 

বিধ্বস্তের পরপরই দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল কর্মকর্তারা জানান, বিমানটি করাচির জিন্নাহ ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে অবতরণের কিছু আগে মডেল কলোনি এলাকায় বিধ্বস্ত হয়। তাতে সেখানকার অন্তত ৪টি বাড়ি ভেঙে চুরমার হয়ে যায়। মুহূর্তেই কালো ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে গোটা এলাকা। 

বিমানটি উদ্ধারের সব ধরনের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) মুখপাত্র আবদুল সাত্তার। 

তবে পিকে-৮৩০৩ নম্বর বিমানটি ঠিক কী কারণে বিধ্বস্ত হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তিনি। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এরইমধ্যে বিমান বিধ্বস্তের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনাস্থলে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর উদ্ধারকারী হেলিকপ্টার উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে পাকিস্তানের শীর্ষ সংবাদমাধ্যম ডন অনলাইনের খবরে। 

ট্যাগ: bdnewshour24