banglanewspaper

করোনার আতংকে গত ২২ মার্চ থেকে টেলিভিশন নাটকের সব ধরনের শুটিং বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় নাট্যনির্মাণ সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো। সরকারি সাধারণ ছুটির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কয়েক দফায় শুটিং বন্ধের সময় বৃদ্ধি করা হয়।

তবে গত ১৫ মে শর্তসাপেক্ষে নাটকের শুটিং করার অনুমতি দিয়েছিল নাট্যনির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ড। কিন্তু অনুমতির একদিন না পেরোতেই সব ধরনের শুটিং বন্ধের নির্দেশ দেয় সংগঠনটি।

এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে নাটকের শুটিং করার অনুমতি দিয়েছে ডিরেক্টরস গিল্ড। ২৮ মে আন্তসংগঠনের জরুরি সভা শেষে সিদ্ধান্ত হয়, ১ জুন থেকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুটিং করা যাবে।

ডিরেক্টরস গিল্ডের নোটিশে বলা হয়েছে—

১. যেহেতু করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সামনের দিনগুলোতে আরো ভয়াবহ অবস্থা হবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, তাই আন্তসংগঠনও শুটিং করার বিষয়ে নিরুৎসাহিত করছে। তবে যাদের কাজ করা অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে, তারা সাময়িকভাবে জীবন-জীবিকা চলমান রাখার স্বার্থে আন্তসংগঠনের দেওয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে যদি কেউ শুটিং কার্যক্রমে নিজ দায়িত্বে অংশ নিতে চান, তাহলে তিনি তা করতে পারবেন।

২. সংশ্লিষ্ট ইউনিট শুটিং শুরু করার আগেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা ছাড়াও স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে শুটিং কার্যক্রম শুরু করবেন। এ ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা সৃষ্টি হলে সংশ্লিষ্ট শুটিং ইউনিটকে তার সম্পূর্ণ দায় বহন করতে হবে।

৩. প্রতিটি শুটিং ইউনিটের সব শিল্পী-কলাকুশলী প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে কি না, তা খতিয়ে দেখবেন। সমস্যা দেখা দিলে প্রযোজনা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সহায়তা নিয়ে তারা তা নিজ উদ্যোগে সমাধান করবেন।

৪। এই ঘোষণা সরকারের ছুটি ও লকডাউন বিষয়ক ঘোষণার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। পরিস্থিতি বিবেচনায় শুটিং কার্যক্রম যেকোনো সময় স্থগিত অথবা সম্পূর্ণভাবে বাতিল হতে পারে। নিরাপদ থাকুন। বাসায় থাকুন। দূরত্ব বজায় রেখে চলুন।

ট্যাগ: bdnewshour24