banglanewspaper

শিল্পোন্নত দেশগুলোর আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় জি-৭ সম্মেলন পেছানোর ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একইসাথে আগামী সম্মেলনে নিয়মিত সদস্যদের পাশাপাশি আরও কয়েকটি দেশকে আমন্ত্রণের কথাও জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার (৩০ মে) ফ্লোরিডার কেপ কার্নিভালে স্পেসএক্স-নাসার রকেট উড্ডয়ন শেষে ওয়াশিংটন ফেরার পথে এয়ারফোর্স ওয়ানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

জি-৭ সম্মেলন প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, ‘করোনার কারণে এটি পিছিয়ে দিচ্ছি। কারণ, মনে হয় না বর্তমান বিশ্বে যা ঘটছে, জি-৭ হিসেবে তা ঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারবে।’

অংশগ্রহণকারী দেশের সংখ্যা বৃদ্ধির বিষয়ে তিনি বলেন, জি-৭-এর বর্তমান ফরম্যাট পুরনো হয়ে গেছে। এবারের সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়া, রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও ভারতকেও অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি, জাপান, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি ও যুক্তরাজ্যের অংশগ্রহণে ১৯৭৫ সাল থেকেই নিয়মিত অনুষ্ঠিত হচ্ছে জি-৭ সম্মেলন। পরে এর সঙ্গে যোগ হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নও।

অবশ্য জি-৭ সম্মেলনে অতিথি দেশের অংশগ্রহণ এটাই প্রথম নয়। গত বছর ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত সম্মেলনেও অস্ট্রেলিয়া, চিলি, মিসর, ভারত, ইরান, সেনেগাল, দক্ষিণ আফ্রিকা ও স্পেনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ।

আগামী জুনে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য জি-৭ সম্মেলন পিছিয়ে দেয়ার ঘোষণায় আশ্চর্য হয়েছেন অনেকেই। কারণ মহামারি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দেখাতে এ সম্মেলন আয়োজন নিয়ে বেশ আগ্রহী ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে বেশ কয়েকটি দেশের সরকার প্রধান মহামারির মধ্যে সম্মেলনে যোগ দিতে অনীহা প্রকাশ করায় বিপাকে পড়েন তিনি।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণপূর্বক ব্যক্তিগত প্রস্তুতিহীনতার কথা উল্লেখ করে সম্মেলনের আমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিয়েছেন অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। শনিবার (৩০ মে) জার্মানির সরকারি মুখপাত্র স্টিফেন সেইবার্টের বরাতে এ খবর জানিয়েছে আল জাজিরা। 

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে যেকোনও ধরনের জনসমাবেশ ঝুঁকিপূর্ণ। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ জানিয়েছেন, মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি হলে তবেই তিনি ক্যাম্প ডেভিডে যেতে রাজি। খবর আল জাজিরা।

ট্যাগ: bdnewshour24